1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

উদ্বিগ্ন খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীরা: ৪ মাসে ৩৭ জনকে হত্যার হুমকি!

বাংলাদেশে শুধু মুক্তমনা নয়, ভিন্ন ধর্মের অনুসারীদের ওপরও হামলা হচ্ছে৷ খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীরাও এর বাইরে নয়৷ তাদের একজনকে হত্যা করা হয়েছে, হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে অন্তত ৩৭ জনকে৷ তাই তারা নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন৷

অডিও শুনুন 03:03

‘নিজেরা সতর্ক হওয়া কোনো সমাধান নয়’

গত বছরের ৫ অক্টোবর ঈশ্বরদীর ব্যাপ্টিস্ট মিশনের ‘ফেইথ বাইবেল চার্চ অফ গড'-এর ফাদার লুক সরকারকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করা হয়৷ একই বছরের ১৮ নভেম্বর দিনাজপুরে পিয়েরো পারোলারি নামে এক ইটালীয় পাদ্রীকে হত্যার চেষ্টা হয় গুলি করে৷

এরপর গত ডিসেম্বর মাসে খ্রিষ্টান অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব নির্মল রোজারিওসহ বেশ কয়েকজন খ্রিষ্টান নেতাকে মোবাইল ফোনে এসএমএস-এর মাধ্যমে হত্যার হুমকি দেয়া হয়৷ আর চলতি বছরের ২২ মার্চ কুড়িগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলীকে হত্যা করা হয়৷ তিনি ধর্মান্তরিত হয়ে খ্রিষ্টান হয়েছিলেন৷

বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার শতকরা এক ভাগ বা ১৬ লাখ খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী৷ এর মধ্যে ক্যাথলিক চার্চের অনুসারী তিন লাখের মতো৷ ঢাকায় অক্সুলারি বিশপ এমিরেটাস থিওওটানিয়াস গোমেজ জানান, ‘‘আমরা সতর্ক, উদ্বিগ্ন, তবে আতঙ্কিত নই৷ আমরা আমাদের ধর্মীয়, সামাজিক এবং শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি৷''

তাঁর কথায়, ‘‘পরিস্থিতি জটিল, কারণ স্থানীয় ইসালামি উগ্রবাদীরা আইএস-এর মতবাদে উদ্বুদ্ধ৷''

বাংলাদেশ খ্রিষ্টান অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব নির্মল রোজারিও ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘আমাকে গত ২২ ডিসেম্বর হত্যার হুমকি দেয়া হয়৷ আমি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি৷ এ পর্যন্ত আমাদের বিশপসহ ৩৭ জনকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে৷''

তিনি বলেন, ‘‘পুলিশ আমাদের নিরাপত্তা দিচ্ছে আর আমরাও সতর্ক হয়ে চলাফেরা করছি৷ তবে আমাদের উপাসনা ও অন্যান্য ধর্মীয় কাজে এখনো কোনো সমস্যা হচ্ছে না৷''

তবে তিনিও এটাও মনে করেন, ‘‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়৷ তাছাড়া নিজেরা সতর্ক হওয়াও সমাধান নয়৷ তাই আমরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে নিরপত্তা চেয়েছি৷''

রাজধানী ঢাকার অদূরে সাভারে ক্যাথলিক সম্প্রদায়ের বসবাস সবচেয়ে বেশি৷ সেখানে তাদের চার্চও আছে৷ সেখানকার কমিউনিটি নেতা ডা. মার্সেল পেরেরা ডয়চে ভেলকে বলেন, ‘‘আমরা এখন সবাই সবার দিকে খেয়াল রাখছি৷ প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা নিচ্ছি৷ এখানে সব ধর্মের অনুসারীদের মধ্যে সম্প্রীতির ভাব আছে৷ তবে আমরা আতঙ্কিত উগ্রবাদী হামলা, গুপ্ত হত্যা ও হুমকি নিয়ে৷''

তিনি জানান, ‘‘আর্চ বিশপ আমাদের বার্তা পাঠিয়েছেন৷ বলেছেন সতর্কতা অবলম্বন করতে৷ আমরা ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পালন করছি, তবে স্বস্তি পাচ্ছি না৷''

বন্ধুরা, আপনারাও কি আতঙ্কের মধ্যে আছেন? জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়