1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

উত্তাপ প্রতিরোধে জার্মান প্রযুক্তি

জার্মানিতে তৈরি বিশেষ তাপ-নিরোধক প্যানেল সংযুক্ত আরব আমিরাতে উত্তাপ দূরে রাখতে সাহায্য করছে৷ ফলে এয়ার কন্ডিশনরের উপর নির্ভরতা কমে যাচ্ছে৷

জার্মানির হেসে রাজ্যে ছবির মতো শহর ওবার রামস্টাট-এ ডিএডাব্লিউ নামের এক মাঝারি মাপের কোম্পানি এখানে বাড়ির রং ও তাপ-নিরোধক প্যানেল তৈরি করে৷ সেখানে মরুভূমির জন্য তৈরি এমনই কিছু প্যানেল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে৷ অত্যন্ত গরম এলাকায় যে পরিবেশ থাকে, এখানে তা-ই নকল করা হচ্ছে৷ কার্বন এই বস্তুকে আরও শক্ত ও মজবুত করে তোলে৷ বেশ কয়েক দশক ধরে এটি টেকসই থাকার কথা৷

সিমেন্টের মতো আঠা দিয়ে বাড়ির দেয়ালে তাপ-নিরোধক প্যানেল লাগানো হয়৷ ভবিষ্যতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এমন প্যানেলের ব্যবহার বাড়তে চলেছে৷ জমজমাট এই অঞ্চলে দ্রুত গড়ে উঠছে অনেক বাড়িঘর৷

ডিএডাব্লিউ কোম্পানির অলিভার ব্যার্গ বললেন, ‘‘প্যানেলের বাইরের স্তরে বর্মের মতো কার্বন ফাইবার ব্যবহার করে কাঠামোর মধ্যে প্রায় ৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উত্তাপ আনা যায় – এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত৷ এমন তাপমাত্রায় ডিমও ভাজা যায়, যদিও আমরা সেটা এখনো পরীক্ষা করে দেখি নি৷ তবে বাইরের অংশ ভীষণ গরম হলেও কার্বন ফাইবারের কারণে প্যানেল খুবই টেকসই হয় – কমপক্ষে ২৫ বছর পর্যন্ত তো বটেই৷''

Kohlefaser Carbon Fiber

কার্বন ফাইবারের ব্যবহার বাড়ছে

জার্মানি থেকে প্রায় ৫,০০০ কিলোমিটার দূরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে থার্মাল ইনসুলেশন বা উত্তাপ নিরোধক ব্যবস্থার চাহিদা সম্প্রতি বাড়ছে, যাতে উত্তাপ ঘরের ভিতর না ঢুকতে পারে৷ তাই জার্মানির ডিএডাব্লিউ সেখানে প্রায় ১ কোটি ইউরো মূল্যের একটি কারখানা তৈরি করেছে৷ এখন তার উদ্বোধন হচ্ছে৷ মরু অঞ্চলে জার্মান প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে কোম্পানির প্রধান রাল্ফ মুরইয়ান ভালো ব্যবসার আশা করছেন৷

দুবাইয়ের সবচেয়ে বড় নির্মাণ কোম্পানির প্রধান মহম্মদ আলি আলাব্বর-ও জার্মানির এই প্রযুক্তিতে আগ্রহী৷ তিনি অঞ্চলের বেশিরভাগ বড় নির্মাণ প্রকল্প চালাচ্ছেন৷ অতএব কোটি কোটি টাকার অর্ডার প্রায় নিশ্চিত বলা চলে৷ ডিএডাব্লিউ-র রাল্ফ মুরইয়ান বললেন, ‘‘সাধারণত শীতের দেশেই থার্মাল ইনসুলেশন চালু আছে বলে সবাই জানে৷ কিন্তু আমরা দেখছি, যে মূলত জ্বালানি বাঁচাতে এখানেও বাইরের দেওয়ালে উত্তাপ নিরোধক ব্যবস্থার চল বাড়ছে৷ আমাদের সহযোগিতা চাওয়া হচ্ছে৷''

শুধু এয়ার কন্ডিশনর চালিয়ে প্রবল উত্তাপ থেকে মুক্তি পাওয়ার পদ্ধতি আরবদের কাছে ক্রমশঃ বেশ ব্যয়বহুল হয়ে পড়ছে৷ এমার আন্তর্জাতিক রিয়েল এস্টেট সংস্থার মহম্মদ আলি আলাব্বার বললেন, ‘‘আমাদেরও উত্তাপ নিয়ে সমস্যা রয়েছে, তবে এখানকার পরিস্থিতি জার্মানির ঠিক বিপরীত৷ আমাদেরও ইনসুলেশনের মাধ্যমে জ্বালানি বাঁচাতে হচ্ছে – তবে শীত নয়, উত্তাপ থেকে সুরক্ষার জন্য৷''

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কয়েক সপ্তাহ আগেই উৎপাদন শুরু হয়ে গেছে৷ গরম তার দিয়ে বড় বড় টুকরো থেকে প্যানেল কেটে নেওয়া হচ্ছে৷ জার্মান বিনিয়োগের ফলে প্রায় ৫০ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে৷ তবে আরবদের কাছে এই উদ্যোগ ভবিষ্যতের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ৷

মহম্মদ আলি আলাব্বার আরও বললেন, ‘‘এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই, যে পেট্রোলিয়াম ফুরিয়ে গেলে এমন বিনিয়োগই কাজে আসবে৷ জার্মানির সাথে সম্পর্কও বেশ গুরুত্বপূর্ণ৷ আমার বিশ্বাস – জার্মান প্রযুক্তি সম্পর্কে এখানকার মানুষের খুবই উচ্চ ধারণা, এমনকি ভালোবাসাও রয়েছে৷''

বিলাসবহুল ‘সোফিটেল' হোটেলে জার্মানির উত্তাপ নিরোধক প্যানেল ব্যবহার করা হচ্ছে৷ ফলে প্রায় ৪০ শতাংশ জ্বালানির খরচ কমানো সম্ভব হয়েছে৷ এমিরেটস গল্ফ ক্লাবের ভিলাগুলিকেও উত্তাপ থেকে রক্ষা করছে এই প্যানেল৷ পরের অর্ডারও এসে গেছে৷ আরও ৮০টি ভবনে প্যানেল লাগাতে হবে৷ ডিএডাব্লিউ আমিরাতে ভালোই ব্যবসা করছে৷ এখনো সেখানে তাদের কোনো প্রতিযোগী উদয় হয় নি৷

এসবি/ডিজি

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়