1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে অনেক দূর এগিয়ে

আবারও ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপানের গুরুত্বপূর্ণ অথনৈতিক অঞ্চলের জলসীমায় পড়েছে৷ এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে জাপান৷ চলতি মাসে তৃতীয়বারে মতো এই পরীক্ষা চালালো উত্তর কোরিয়া৷

স্থানীয় সময় সোমবার সকাল ৫টা ৪০ মিনিটে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়৷ স্বল্প পাল্লার ওই স্কাড ক্ষেপণাস্ত্রটি ৪৫০ কিলোমিটার উড়ে গিয়ে জাপানের জলসীমায় পড়েছে৷ জাপানের মন্ত্রিসভার পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশটির বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের দুটি দ্বীপের মাঝামাঝি এলাকায় ক্ষেপণাস্ত্রটি অবতরণ করেছে৷ এতে কোনো নৌযানের ক্ষয়ক্ষতি না হলেও বিষয়টিকে ‘চরম ধৃষ্টতা’ বলে মন্তব্য করেছে দেশটির মন্ত্রিসভা৷

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ক্ষোভ জানিয়ে বলেছেন, ‘‘উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা জাতিসংঘের নিরাপত্তা চুক্তির চরম লঙ্ঘন এবং এ ধরণের কাজ থেকে দেশটিকে বিরত রাখতে তাদের মোকাবিলা করতে হবে৷’’

যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক কমান্ড জানিয়েছে, ‘‘উত্তর কোরিয়ার ওনসান থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়া হয় এবং অবতরণের আগে প্রায় ছয় মিনিট এটি আকাশে ছিল৷’’ দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘‘ক্ষেপণাস্ত্রটি ১২০ কিলোমিটার উচ্চতায় উঠেছিল৷’’ দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন প্রেসিডেন্ট শপথ নেওয়ার পর তৃতীয়বারের মতো ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালালো দেশটি৷

হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উত্তর কোরিয়ার নতুন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ব্যাপারটি জানানো হয়েছে৷ তবে মার্কিন প্যাসিফিক কমান্ড জানিয়েছে, এটি উত্তর অ্যামেরিকার জন্য কোনো হুমকি নয়৷  গত মাসে ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার ওপর অবরোধ আরোপের সময় দেশটিকে সতর্ক করে বলেছিলেন, ‘‘এই রাষ্ট্রটির সঙ্গে চরম সংঘাত হতে পারে’’৷

এদিকে, রাশিয়াও উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার নিন্দা জানিয়ে পুরো বিশ্বকে তা প্রতিরোধ করার আহ্বান জানিয়েছে৷ রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্র মন্ত্রী সংবাদ মাধ্যমে জানান, ‘‘আমাদের মিত্র শক্তিরা যাতে পূর্ণ শক্তি দিয়ে এদের মোকাবিলা করতে প্রস্তুত থাকে৷’’

বিশ্লেষকরা বলছেন, একের পর এক চালানো এসব পরীক্ষা থেকে বোঝা যাচ্ছে, ওয়ারহেড বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে উত্তর কোরিয়া ক্রমাগত অগ্রগতি অর্জন করছে৷

এর আগে উত্তর কোরিয়ার যে দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের ‘সফল’ পরীক্ষা চালানোর দাবি করেছে সেগুলো মাঝারি ও দীর্ঘ পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ছিল৷ ২১ মে মাঝারি পাল্লার একটি এবং ১৪ মে দীর্ঘ পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র দুটির পরীক্ষা চালিয়েছিল দেশটি৷ এ বছরে এটি তাদের ১২তম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা৷

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়