1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়ার নতুন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা এটাই প্রমাণ করে আন্তঃমহাদেশে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের ক্ষেত্রে তারা অনেকটাই এগিয়েছে-এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা৷

কোরীয় উপত্যকা এবং যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এটি একটি অশনীসংকেত বলে জানিয়েছেন তারা৷

‘বড় ধরনের ভারী পারমাণবিক ওয়ারহেড’ বহনের সক্ষমতা যাচাই করতে নতুনভাবে তৈরি একটি মধ্য থেকে দীর্ঘ পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে উত্তর কোরিয়া৷ উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে ক্ষেপণাস্ত্রটি পরীক্ষার পর তাদের নেতা কিম জং উন যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, তাদের ক্ষমতাকে যেনো ছোট করে না দেখা হয়৷

রবিবার নেতা কিম জং উনের তত্ত্বাবধানে ক্ষেপণাস্ত্রটির সফল উৎক্ষেপণ করা হয় বলে জানিয়েছে কেসিএনএ৷ যেসব দেশের ‘পারমাণবিক অস্ত্র নেই’ তাদের ভীতি প্রদর্শনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করেছেন কিম৷ যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ড উত্তর কোরিয়ার ‘হামলার আওতায়’ আছে বলে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন তিনি৷

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রটি রাশিয়ার পূর্ব সীমান্তের কাছে সাগরে গিয়ে পড়ে৷ কেসিএনএ জানিয়েছে, প্রতিবেশী দেশগুলোর নিরাপত্তায় যেন বিঘ্ন না ঘটে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণের সময় সেদিকে লক্ষ্য রাখা হয়েছিল৷

দক্ষিণ কোরিয়ার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন বুধবার দায়িত্ব গ্রহণের পর উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা শুরু করার প্রতিশ্রুতি দেন৷ তার কয়েকদিনের মধ্যেই উত্তর কোরিয়া নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করল৷

তবে নতুন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের উত্তর কোরিয়ার দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া বলেছে, এই ক্ষেপণাস্ত্রে প্রযুক্তিগত কোনো উন্নতি নেই৷ দক্ষিণ কোরিয়ার এক সেনা মুখপাত্র জানান, এর সম্ভাবনা খুবই কম বলে তাদের বিশ্বাস৷ তবে ক্ষেপণাস্ত্রের এই উৎক্ষেপণকে দক্ষিণ কোরিয়ার জন্য একটি সংকেত বলে উল্লেখ করেছে যুক্তরাষ্ট্র৷

উত্তর কোরিয়া একটি নতুন ধরনের পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করতে কাজ করছে যেটি যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছাতে সক্ষম, এটি আট হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারবে৷ বিশ্লেষকরা বলছেন, উত্তর কোরিয়া যে ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বানাচ্ছে তাতে তারা কয়েক বছরের মধ্যেই নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছে যাবে৷

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, রবিবার পরীক্ষা করা নতুন ক্ষেপণাস্ত্রটির নাম হোয়াসং-১২, উপরের দিকে দুই হাজার ১১১ দশমিক ৫ কিলোমিটার পর্যন্ত উঠে ৭৮৭ কিলোমিটার দূরে গিয়ে পড়েছে এটি৷ প্রচলিত গমনপথ অনুসরণ করে ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়া হলে এটি অন্তত ৪,০০০ কিলোমিটার (২,৫০০ মাইল) পথ অতিক্রম করতো বলে তাঁদের ধারণা৷

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ

গত বছর পারমাণবিক অস্ত্র নিমার্ণ এবং ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে উত্তর কোরিয়া জাতিসংঘের নিয়ম লঙ্ঘন করেছে , এই অভিযোগে দেশটির বিরুদ্ধে সম্প্রতি আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে৷ যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানের অনুরোধের ভিত্তিতে নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার বিষয়ে আলোচনা করতে মঙ্গলবার বৈঠকে বসবে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়