1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

উত্তর কোরিয়ার ফুটবলাররা খেলবে দক্ষিণ কোরিয়ায়

দু'দেশের মধ্যে বৈরিতার কারণে স্বাভাবিক প্রতিবেশীর আচরণ সবসময় বিস্ময়ই জাগায়৷ এশিয়ান গেমস নিয়ে একটি আপাত ‘স্বাভাবিক' খবরও তাই খুব গুরুত্ব পাচ্ছে৷ দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় এ আয়োজনে অংশ নেবে উত্তর কোরিয়ার ফুটবলাররা৷

দুই কোরিয়ার মধ্যে বৈরিতার সম্পর্কে উন্নতির লক্ষণ গত ৫০ বছরে খুব একটা দেখা যায়নি৷ ১৯৫০ সালে শুরু হয়ে ১৯৫৩ সালে শেষ হয় ‘কোরিয়া যুদ্ধ'৷ তারপর থেকে দু-দেশ সম্ভব সব উপায়েই একে অন্যের প্রতি বিদ্বেষের মনোভাব প্রকাশ করেছে৷ ক্রীড়াঙ্গনও এ অস্বাভাবিকতার বাইরে ছিল না৷ ১৯৮৮ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সৌলে অনুষ্ঠিত অলিম্পিকে অংশ নেয়নি উত্তর কোরিয়ার ক্রীড়াবিদরা৷

তবে হালে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়াকে কেন্দ্র করে দুই কোরিয়ার মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হলেও ক্রীড়াঙ্গণে সম্প্রীতির বাতাবরণ ফিরে আসার ইঙ্গিতও দেখা যাচ্ছে৷ ২০০২ সালে এশিয়ান গেমস হয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়ার বুশানে৷ ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত ওই ক্রীড়া উৎসবে অ্যাথলিট এবং চিয়ারলিডার পাঠিয়েছিল উত্তর কোরিয়া৷ এ বছর এশিয়ান গেমস হবে দক্ষিণ কোরিয়ার বন্দর নগরী ইঞ্চেয়নে৷ উত্তর কোরিয়া জানিয়েছে, এ আসরে তারা পুরুষ ও মহিলা ফুটবল দল পাঠাবে৷ দেশটির সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়৷

এর আগে এশিয়ান অলিম্পিক কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রতিবেশী দেশ উত্তর কোরিয়াকে এশিয়াডে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানায় দক্ষিণ কোরিয়া৷ আসর শুরু হতে এখনো সাত মাস বাকি৷ তবে সম্পর্কোন্নয়নের সদিচ্ছার ইঙ্গিত হিসেবে উত্তর কোরিয়া অনেক সময় থাকতেই জানিয়ে দিয়েছে, ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠেয় এ প্রতিযোগিতায় তারা ফুটবলারদের পাঠাবে৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন