1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ঈদ উপলক্ষ্যে রাজনৈতিক সংকট নিরসনের প্রার্থনা

বাংলাদেশে ঈদ উল আজহার নামাজে মুসল্লিরা রাজনৈতিক সম্প্রীতির প্রার্থনা করেছেন৷ প্রধানমন্ত্রী ঈদের শুভেচ্ছা অনুষ্ঠানে বলেছেন, বিরোধী দলের জন্য আলোচনার দরজা খোলা ৷ খালেদা জিয়া বলেছেন, একতরফা নির্বাচনে তাঁরা অংশ নেবেন না৷

সকালে জাতীয় ঈদগায় সমবেত মুসল্লিরা ঈদের নামাজ আদায় করেন৷ এরপর মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর ঐক্য এবং শান্তি কামনার সাথে প্রাধান্য পায় রাজনৈতিক পরিস্থিতি৷ ঈদের জামায়াতের ইমাম মুফতি মহিবুল্লাহ দেশে রাজনৈতিক সম্প্রীতির জন্য প্রার্থনা করেন৷ নামাজ শেষে মুসল্লিরা জানান, এবার ঈদ যেন হয় রাজনৈতিক সম্প্রীতির৷ তাঁরা বলেন, ঈদের পর দেশের পরিস্থিতি কোন দিকে যায় তাঁরা তা নিয়ে আতঙ্কিত৷ তাঁরা চান, দেশের রাজনৈতিক দলগুলো যেন আলাপ আলোচনার মাধ্যমে নির্বাচন নিয়ে একটি সমঝোতায় পৌঁছান৷ বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদেও ৪টি ঈদের জামাতেও একই প্রার্থনা করা হয়েছে৷

এদিকে দেশের সবচেয়ে বড় ঈদ জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায়৷ সেই জামায়াতের ইমাম মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ ডয়চে ভেলেকে টেলিফোনে জানান, দেশের এখন সবচেয়ে বড় সংকট রাজনৈতিক সংকট৷ ঈদের দিনেও সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ঈদের পর কী হবে৷ তাই ঈদের জামায়াতে তিনি দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য মোনাজাত করেছেন৷ মুসল্লিরা প্রার্থনা করেছেন, দেশ যেন সংঘাতের হাত থেকে রক্ষা পায়৷ তিনি আরও বলেন, কোরবানির ঈদে পশু কোরবানির মত রাজনৈতিক দলগুলো যদি তাদের অযৌক্তিক অবস্থানকে কোরবানি দেয় তাহলে দেশ সংকটমুক্ত হবে৷

epa03912061 Bangladeshi men tie a cow with ropes as they prepare to sacrifice it during the Eid al-Adha celebrations in Dhaka, Bangladesh, 16 October 2013, the second day of the festivity in Bangladesh. Muslims worldwide observe the Eid al Adha festival or Feast of the Sacrifice, during which they sacrifice permissible animals - generally rams, goats, sheep, cows and camels - to commemorate the Prophet Abraham's (Ibrahim's) readiness to sacrifice his son as a sign of his obedience to God. EPA/ABIR ABDULLAH

ঈদের নামাজের পর মুসলমানরা পশু কোরবানি দেন

ঢাকায় ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিরোধী দলের জন্য সব সময় আলোচনার দরজা খোলা আছে৷ তারা চাইলে তিনি ও তাঁর দল আলোচনা করতে রাজি আছেন৷ রাজনৈতিক বিষয় আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে ঠিক করতে তাঁর কোনো আপত্তি নেই৷ তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই৷ নির্বাচন যথাসময়ে হবে৷ আর ২৪শে অক্টোবরের পর দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং শান্ত থাকবে৷

বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে সরকারকে আলাপ-আলোচনার উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন৷ তিনিও বলেছেন, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান সম্ভব, তবে উদ্যোগ নিতে হবে সরকারকেই৷ তিনি বলেন বিএনপি কোনোভাবেই একতরফা নির্বাচনে অংশ নেবেনা৷ নির্বাচন হতে হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে৷ তাঁর মতে, দেশের যা পরিস্থিতি তাতে এই ঈদে মানুষের মনে আনন্দ নেই৷

এদিকে সকালে ঈদের নামাজের পর মুসলমানরা পশু কোরবানি দেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন