1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইস্টার খরগোশের সঙ্গে নাচের কম্পিটিশন!

সে আবার এমন ইস্টার খরগোশ, যার পেট থেকে গান বেরোয় আর যে লম্বা লম্বা দু'কান নেড়ে নাচতে পারে৷ অন্যদিকে বেবি আবার খরগোশের মতোই থেবড়ে বসতে পারে আর দু'হাত তুলে নাচতে পারে৷ দেখা যাক কে জেতে!

বেবি, মানে একেবারে কচিকাঁচাদের মধ্যে এমন কিছু একটা আছে, যা আমাদের টানে৷ সেটা একদিকে যেমন তাদের অসহায়তা, অন্যদিকে তেমন তাদের অতি তাড়াতাড়ি নতুন কিছু একটা শিখে নেওয়ার ক্ষমতা৷ বেবিদের শেখার একটা বড় পন্থা হলো, অন্যরা যা করছে, তার নকল করা৷ ভাবটা যেন: তুমি যা করছ, তা আমিও পারি৷

দ্বিতীয়ত, বেবিরা অতিমাত্রায় সাম্যবাদী; তাদের কাছে মানুষ আর জীবজন্তুর মধ্যে বিশেষ কোনো ফারাক নেই৷ ইউটিউবেই কত ভিডিও পাবেন, যেখানে বেবিরা বা শিশুরা পাল্লা দিয়ে কুকুর-বেড়ালের সঙ্গে কম্পিটিশন করে যাচ্ছে৷ আবার কুকুররাও দেখবেন, বেবিরা যা করছে, নির্দ্বিধায় তার নকল করে৷ কখনো-সখনো বেবি যেটা পারছে না – যেমন হামাগুড়ি দেওয়া – বাড়ির পোষা কুকুর সেটা বেবিকে শিখিয়ে দেওয়া চেষ্টা করে!

অর্থাৎ বেবি আর তার ছোট্ট জগতের সঙ্গিসাথি – যেমন বাড়ির কুকুর কিংবা খেলনা – এই দু'পক্ষের মধ্যে অনুকরণ, সহযোগিতা আর প্রতিযোগিতার একটা ত্রিধারা গড়ে ওঠে৷ যেমন আমাদের খাড়াচুল বেবি আর তার ইস্টার খরগোশ খেলনাটির মধ্যে৷ ইস্টারের ‘বানি' – মানে বানি ব়্যাবিট – গান চালিয়ে কান নাড়তে শুরু করলেই, বেবিও হাত নেড়ে তার অনুকরণ বা মোকাবিলা করার চেষ্টা করে৷ তা বেচারার লম্বা লম্বা কান নেই, তো সে কী করবে; হাতগুলো রয়েছে কী করতে? আর আমরা যে বেবির আন্তরিক চেষ্টা দেখে হেসে কুটিপাটি হই, সেটাও তো আমাদেরই বোকামি৷ আমরা হাসছি বলে সে কি শিখবে না? ইস্টার খরগোশ জিতে যাবে?

এসি/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন