1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মতামত

‘ইসলামিক স্টেট' বলতে পাঠকরা যা বোঝেন

আল-কায়েদার অখ্যাত এক উপদল থেকে প্রভাবশালী ‘মিলিট্যান্ট মুভমেন্টে' পরিণত হয়েছে তথাকথিত ‘ইসলামিক স্টেট'৷ তবে পাঠকদের অনেকেই ডয়চে ভেলের ফেসবুক পাতায় ‘ইসলামিক স্টেট' সম্পর্কে ভিন্ন মত পোষণ করেছেন৷

‘‘ইসলামিক স্টেট হলো পশ্চিমা মিডিয়াগুলোর খবর যোগানোর অন্যতম একটা উৎস৷ এইটা না থাকলে পশ্চিমা মিডিয়া দুনিয়াতে ‘সাপ্লাই' করার জন্য কোনো খবরই খুঁজে পেত না৷ তাই পশ্চিমা নেতা-কর্মী জীবন বাজি রেখে ইসলামিক স্টেটকে পানি ও খাদ্য সরবরাহ করে বাঁচিয়ে রেখে মিডিয়াগুলোও টিকিয়ে রেখেছে৷'' এই মন্তব্য করেছেন পাঠক মাহবুব মানিক৷

তবে সেলিম খানের ধারণা, ‘আইএস' বলতে কিছু নেই৷ এইসব নাকি পশ্চিমা মিডিয়ার প্রচার করা খবর৷ তাঁর কথায়, ‘‘ইসলাম শান্তির আলোচনা করে, জিহাদ শব্দের মানে যে না বোঝে সে নাকি কোন ধর্ম শান্তি বয়ে আনে, সেটাই জানে না৷''

পাঠক আজিজুল হক মনে করেন, এ সব কিছুর যোগানদাতা অ্যামেরিকা আর ইসরাইল৷ তারাই নাকি  ইসলামের অপবাখ্যা, প্রচার ও ধ্ধংস করার চক্রান্তে এ সব করছে৷

অন্যদিকে আতিকুল ইসলামে কটাক্ষ মন্তব্য ‘ইসলামিক স্টেট' না, সেটা হবে ‘ইসরাইলি স্টেট'৷

মঈন আহমেদের ধারণাও এ রকমই৷ 

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন