1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মধ্যপ্রাচ্য

ইসরায়েলে আল-জাজিরার অফিস বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা

ইসরায়েলে আল-জাজিরা বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন ইসরায়েলি সরকার৷ কাতারের আন্তর্জাতিক সংবাদ নেটওয়ার্কটি ইসরায়েলের প্রতি বিরূপ মনোভাব পোষণ করে, বলে ইসরায়েলের অভিযোগ৷

ইসরায়েলের যোগাযোগ মন্ত্রী আয়ুব কারা রবিবার ঘোষণা করেন যে, তিনি ইসরায়েলে আল-জাজিরার কার্যকলাপ বন্ধ করে দিতে চান৷

কারা বলেন যে, তিনি আল-জাজিরার কর্মীদের প্রেসকার্ড বাতিল করতে চান ও জেরুসালেমে আল-জাজিরার কার্যালয়টি বন্ধ করে দিতে চান৷ এছাড়া তিনি কেবল অপারেটরদের আল-জাজিরার অনুষ্ঠান সম্প্রচার বন্ধ করতে অনুরোধ করেছেন, ও কেবল অপারেটররা আল-জাজিরার আরবি ও ইংরেজি চ্যানেল দু'টি সম্প্রচার না করতে সম্মত হয়েছেন, বলে কারা জানান৷ জেরুসালেমে আল-জাজিরার অফিস বন্ধ করে দিতে বাড়তি আইন প্রণয়নের প্রয়োজন পড়বে, বলে কারা মন্তব্য করেন৷

জঙ্গি গোষ্ঠীসমূহকে সহিংসতার ‘‘প্ররোচনা’’ দেবার জন্য আল-জাজিরাকে ব্যবহার করা হয়ে থাকে, বলে কারা অভিযোগ করেন৷ তাঁর দৃষ্টিতে আল-জাজিরা ‘‘সন্ত্রাসবাদকে সাহায্য করে’’: মধ্যপ্রাচ্যের একাধিক আরব দেশ যে এই কারণে আল-জাজিরাকে নিষিদ্ধ করেছে, অথচ ইসরায়েল করেনি – কারা এই পরিস্থিতিকে একটি ‘‘বিভ্রম’’ বলে অভিহিত করেন৷

‘‘সম্প্রতি আমাদের এলাকার প্রায় সব দেশ স্থির করেছে যে, আল-জাজিরা সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন দিয়ে থাকে, ধর্মীয় উগ্রপন্থাকে সমর্থন করে থাকে৷ এবং আমরা যখন দেখি যে, এই সব ক'টি দেশের মতে আল-জাজিরা ইসলামিক স্টেট, হামাস, হেজবোল্লাহ ও ইরানের হাতের ক্রীড়নক – শুধু আমরাই সে’ সিদ্ধান্তে আসিনি, তাহলে এখানে (আমাদের) একটা বিভ্রম ঘটছে’’, বলেন কারা৷

জর্ডান ও সৌদি আরব আল-জাজিরার স্থানীয় কার্যালয় বন্ধ করে দিয়েছে; অপরদিকে সৌদি আরব, ইউএই, মিশর ও বাহরেইন আল-জাজিরা ও তাদের শাখা সাইটগুলিকে ব্লক করেছে –এছাড়া এই চারটি দেশ কাতারের কাছে যে বিভিন্ন দাবির তালিকা পেশ করেছে, সেখানেও আল-জাজিরা বন্ধ করে দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে, তবে সেই দাবি পূরণের কোনো সময়সীমা নির্দিষ্ট করা হয়নি৷

নেতানিয়াহু বদ্ধপরিকর

ইসরায়েলের সরকারি কর্মকর্তারা বহুদিন ধরেই আল-জাজিরার বিরুদ্ধে ইসরায়েলের প্রতি অ-পক্ষপাতমূলক মনোভাব পোষণের অভিযোগ করে আসছেন৷ ইসরায়েলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী আভিগডর লিবারমান আল-জাজিরার ইসরায়েল সংক্রান্ত বিবরণ প্রদানকে ‘‘নাৎসি জার্মানির কায়দায়’’ অপপ্রচারের সঙ্গে তুলনা করেছেন৷ প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু সম্প্রতি আল-জাজিরার বিরুদ্ধে সহিংসতায় ‘‘প্ররোচনা’’ দেওয়ার অভিযোগ করেন৷

‘‘আল-জাজিরা চ্যানেল টেম্পল মাউন্ট (আল-আকসা মসজিদ)-এর চারপাশে সহিংসতার প্ররোচনা দিয়ে চলেছে’’, বলে নেতানিয়াহু গত ২৭শে জুলাই তারিখে একটি ফেসবুক পোস্টে লেখেন৷ অপরদিকে নেতানিয়াহু সাধারণভাবেই নিউজ মিডিয়ার উপর বিশেষ প্রীত নন৷

আল-জাজিরা জেরুসালেমে তাদের কার্যালয় বন্ধ করে দেবার পরিকল্পনাকে ‘‘অ-গণতান্ত্রিক’’ বলে অভিহিত করেছে ও এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে, বলে জানিয়েছে৷

এসি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়