1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরান রাশিয়ায় ইউরেনিয়াম পাঠাল

ইরান জাহাজে করে রাশিয়া অভিমুখে এগারো হাজার কিলোগ্রামের বেশি সমৃদ্ধকৃত ইউরেনিয়াম পাঠিয়েছে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি যাকে ‘‘প্রতিশ্রুতি পূরণের পথে ইরানের গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ'' বলে অভিহিত করেছেন৷

জাহাজটি দৃশ্যত সোমবার যাত্রা শুরু করে৷ বিশ শতাংশ অবধি সমৃদ্ধকৃত ইউরেনিয়াম, যা এখনো অবধি তেহরান রিসার্চ রিয়্যাক্টরের জন্য ফুয়েল প্লেটে পরিণত করা হয়নি, সেই সমস্ত ইউরেনিয়াম এবার রাশিয়ায় পাঠানো হয়েছে, বলে কেরি জানান৷

আগামী জানুয়ারির মধ্যে চুক্তির বাস্তবায়ন সম্পন্ন হবার কথা৷ তারপর ইরানের কাছে ৩০০ কিলোগ্রামের বেশি সমৃদ্ধকৃত ইউরেনিয়াম থাকলে চলবে না৷ কেরি স্বয়ং যে এই সর্বাধুনিক বিকাশধারায় কতটা আশাবাদী, সেটা প্রকাশ পেয়েছে তাঁর ব্যক্তিগত টুইটে৷

ইরানের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হবার সময় থেকেই কেরি এ'বিষয়ে আশাবাদী৷

তবে ইরান চুক্তির প্রতি প্রতিরোধ থেকেই যাচ্ছে, বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান রাজনীতিকদের মধ্যে৷

রাশিয়াকে ইউরেনিয়াম পাঠানোর ফলে মূল পরিবর্তন যেটা হবে, সেটা হলো এই যে, এ যাবৎ ইরানের পক্ষে একটি আণবিক বোমা তৈরি করার মতো অস্ত্রোপযোগী ইউরেনিয়াম জমা করতে বড়জোর দুই থেকে তিন মাস সময় লাগত; এবার সেটা বেড়ে ছয় থেকে নয় মাস হয়ে দাঁড়াবে৷

রাশিয়ায় ইউরেনিয়াম পাঠানোর বিনিময়ে ইরান রাশিয়ার কাছ থেকে ১৩৭ টন তথাকথিত ‘‘ইয়েলো কেক'' বা ইউরেনিয়াম কনসেন্ট্রেট পেয়েছে বলে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা আইএইএ জানিয়েছে৷ কেরিও রাশিয়ার এই ‘‘অপরিহার্য ভূমিকাকে'' স্বীকৃতি দিয়েছেন৷

সব কিছু ঠিকমতো চললে জানুয়ারি মাসে ‘‘ইমপ্লেমেন্টেশন ডে'' বা ‘বাস্তবায়ন দিবসে' আইএইএ ঘোষণা করবে যে, ইরান তার পারমাণবিক কর্মসূচি সীমিত করার জন্য করণীয় সব কিছু করেছে, যার পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা প্রত্যাহার করবে৷

ইরানের একঘরে দশা কি সত্যিই সমাপ্ত হতে চলেছে? জানান নীচের মন্তব্যের ঘরে৷

এসি/ডিজি (ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়