1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরানের পরমাণু সংকট নিরসনে সক্রিয়তা বেড়েছে চীনের

পরমাণু কর্মসূচি বন্ধে ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপে চীন রাজি কি না সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয়৷ তবে, এ বিষয়ে চীনের সক্রিয়তা বেড়েছে নিঃসন্দেহে৷

default

জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল এ নিয়ে ফোনে কথা বলেছেন চীনা প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও এর সঙ্গে৷ ইরানের শীর্ষ পরমাণু আলোচকও এখন বেইজিংয়ে৷

গত ক'দিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্র ইঙ্গিত দিয়ে আসছে চীনের ওপর চতুর্থ দফায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা আরোপে ঐকমত্যে পৌঁছানোর সম্ভাবনা দেখা গেছে বিশ্ব শক্তিগুলোর মধ্যে৷ রাশিয়া রাজি, প্রায় রাজি চীনও৷ এমনটাই আলোচনার বিষয় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে৷

এ অবস্থার প্রেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে মুখ খুলেছে চীন৷ তবে, এ নিয়ে গুরুতর আলোচনায় বসার কথা জানালেও চীন স্পষ্ট করে বলেনি ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞায় তাদের মত আছে কি না৷ বরং বরাবরের মতোই চীন বলেছে শান্তিপূর্ণ সমাধান চায় তারা৷

রাজধানী বেইজিংয়ে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিন গাং সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘‘আমরা সবসময় যেমনটা করেছি, তেমনি একটা শান্তিপূর্ণ সমাধানের পক্ষে ভবিষ্যতেও চেষ্টা চালিয়ে যাবো৷'' একইসঙ্গে তিনি বলেন, এই সংকট ‘‘কূটনৈতিক পথে'' নিরসন করতে হবে৷

ওদিকে, চীনের প্রেসিডেন্ট হু জিনতাও আগামী ১২ ও ১৩ই এপ্রিল ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ‘পরমাণু নিরাপত্তা' সম্মেলনে যোগ দেবেন বলেও জানান চীনা মুখপাত্র৷ ওবামার সঙ্গে হু জিনতাও-এর দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হবে কিনা তা না জানালেও অন্যান্য ইস্যুর সঙ্গে ইরান সংকট নিয়েও তারা কথা বলবেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি৷

ইরানের পরমাণু সংকটে চীন যে আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে সক্রিয় রয়েছে তা স্পষ্টভাবেই বোঝা যাচ্ছে আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে৷ ইরান ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্যের সঙ্গে একযোগে কাজ করা জার্মানিও যোগ দিয়েছে এই তৎপরতায়৷ বৃহস্পতিবারও দেশটির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল টেলিফোন করেছিলেন চীনা প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও-কে৷ ইরান নিয়ে অচলাবস্থা নিরসনে তাঁদের মধ্যে ‘‘বিশদ ও বন্ধুত্বপূর্ণ আলাপ'' হয়েছে বলে জানিয়েছে জার্মান সরকারের এক মুখপাত্র৷

ওদিকে, ইরানের শীর্ষ পরমাণু আলোচক সায়ীদ জলিলি গিয়েছেন বেইজিংয়ে৷ চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াং জিয়েচিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি৷ জলিলি'র এ সফরও প্রমাণ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব অনুসারে ইরানের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বিতর্কে ক্রমেই জোরালো ভূমিকা রাখছে চীন৷

এদিকে, নিরাপত্তা পরিষদের ভিটো ক্ষমতাসম্পন্ন আরেক দেশ রাশিয়া বৃহস্পতিবার ইঙ্গিত দিয়েছে ইরান অচলাবস্থা নিরসনে ‘‘সুনির্দিষ্ট নিষেধাজ্ঞা'' আরোপে প্রস্তুত তারা৷

প্রতিবেদন : মুনীর উদ্দিন আহমেদ

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়