1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ইরান

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হোসেন ডেনঘান জানান, গত সপ্তাহান্তে তাঁর দেশ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন৷

দায়িত্ব নেয়ার পর দেয়া প্রথম আনুষ্ঠানিক বক্তব্যে ফ্লিন বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, সপ্তাহান্তে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ও দেশটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিদ্রোহীদের সৌদি এক জাহাজে হামলা চালানোর ঘটনা দু'টি মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে ইরানের ‘অশান্ত আচরণ'-এর আভাস দিচ্ছে৷ ‘‘আজ থেকে আমরা ইরানকে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘অন নোটিস'-এ রাখছি'', বলেন তিনি৷ তবে তাঁর এই বক্তব্যের অর্থ ব্যাখ্যা করেননি তিনি৷

উল্লেখ্য, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে ইরানের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করেছিল ছয় বিশ্ব শক্তি৷ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সেটি সমর্থনও করেছিল৷ চুক্তিতে বলা হয়, ইরান যদি তার পরমাণু কার্যক্রমে লাগাম টানে তাহলে তার উপর থেকে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে৷

২০১৫ সালে ঐ চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর ইরান বেশ কয়েকবার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায়৷ তবে গত সপ্তাহান্তের পরীক্ষাটি ছিল ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথম৷ নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর সময় ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে বিশ্ব শক্তিদের স্বাক্ষরিত চুক্তির সমালোচনা করেছিলেন এবং তিনি ইরানের মিসাইল প্রোগ্রাম বন্ধ করবেন বলে জানিয়েছিলেন৷

ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ফ্লিন বলেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা জাতিসংঘ রেজোলিউশনের লঙ্ঘন৷ এই রেজোলিউশন বলছে, পরমাণু অস্ত্র নিক্ষেপ করতে পারে এমন ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির কাজে জড়িত হবে না ইরান৷

তবে ইরান বলছে, ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা রেজোলিউশনের লঙ্ঘন নয়, কারণ প্রতিরক্ষা বিষক উদ্দেশ্য পূরণের লক্ষ্যে এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে, পরমাণু অস্ত্র ছোঁড়ার জন্য নয়৷ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হোসেন ডেনঘান বলেন, ‘‘সাম্প্রতিক পরীক্ষা ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি ও জাতিসংঘ রেজোলিউশনের লঙ্ঘন নয়৷ আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী আমরা এই পরীক্ষা চালিয়েছি এবং বিদেশিদের আমাদের প্রতিরক্ষা বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে দেয়া হবে না৷''

উল্লেখ্য, ইরানের কাছে যে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আছে তা মধ্যপ্রাচ্যের একটি বড় অংশে হামলা চালাতে সক্ষম৷ যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি ঘাঁটি ও ইরানের আঞ্চলিক শত্রু ইসরায়েলেও আঘাত হানতে সক্ষম ইরানের মিসাইল৷ ইরান বলছে, যুক্তরাষ্ট্র কিংবা ইসরায়েলের হামলা ঠেকাতে তাদের মিসাইল কার্যকরি৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়