1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ইরানের কোচ হতে পারেন জার্মান কিংবদন্তি মাটেউস

তাঁর অধিনায়কত্বে বিশ্বকাপ জিতেছে জার্মানি৷ বায়ার্ন মিউনিখকেও ক্লাব ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসিয়েছিলেন লোটার মাটেউস৷ পেয়েছেন বিশ্বসেরা ফুটবলারের স্বীকৃতি৷ জার্মান এই কিংবদন্তি এবার হতে পারেন ইরান ফুটবল দলের কোচ৷

ব্রাজিল বিশ্বকাপের পরই ইরান ফুটবল দলের কোচ হিসেবে নিজের মেয়াদ শেষ করবেন কার্লোস কিয়েরোস৷ তারপর নতুন কোচ খুঁজতে হবে ইরানকে৷ খোঁজার কাজে নাকি নেমে পড়েছে সে দেশের ফুটবল ফেডারেশন৷ বিশ্বকাপের পরেই নাকি জার্মানিকে ১৯৯০ বিশ্বকাপ জেতানো লোটার মাটেউসকে চায় তারা৷

আগামী শুক্রবার ইরান যাবেন ফুটবলার হিসেবে নিজের দেশকে একবার (১৯০) বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন এবং দু'বার (১৯৮২, ১৯৯৬) রানার্সআপ করা মাটেউস৷ জার্মানিকে একবার (১৯৮০) ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপও জিতিয়েছেন তিনি৷ ক্লাব ফুটবলেও আছে অনেক সাফল্য৷ বোরুসিয়া ম্যোনশেনগ্লাডবাখকে উয়েফা কাপে একবার রানার্সআপ (১৯৮০) করা, বায়ার্ন মিউনিখকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দু'বার রানার্সআপ (১৯৮৬-৮৭) , ১৯৯৮-৯৯) করা, একবার উয়েফা কাপ জেতানো (১৯৯৬), সাতবার বুন্ডেসলিগা জেতানো – এ সবও রাখতে হবে সাফল্যের তালিকায়৷

এ সব সাফল্যের জন্য মাটেউস নিজেও পেয়েছেন আজীবন মনে রাখার মতো বেশ কিছু স্বীকৃতি৷ ‘গোল্ডেন বল' বা ‘বালঁ দর' জিতেছেন ১৯৯০ সালে, পরের বছর হয়েছিলেন ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার৷ এমন সফল ক্যারিয়ার শেষে শুরু হয় কোচ হিসেবে নতুন জীবন৷ হাঙ্গেরি এবং বুলগেরিয়া জাতীয় দলের কোচ হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি৷

শুক্রবার ব্রাজিল বিশ্বকাপ নিয়ে একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ইরানে যাবেন ৫২ বছর বয়সি মাটেউস৷ ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, সে দেশের ফুটবল ফেডারেশন নাকি কিয়েরোস চলে যাওয়ার পর তাঁর জায়গায় মাটেউসকেই চাচ্ছে কোচ হিসেবে৷ মাটেউসেরও প্রস্তাব বিবেচনা করে দেখতে কোনো আপত্তি নেই৷ বার্তাসংস্থা ডিপিএ-কে তিনি বলেছেন, ‘‘সব দিক বিবেচনা করে প্রস্তাব দেয়া হলে আমি নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করবো না৷ প্রস্তাবটি অবশ্যই বিবেচনা করে দেখবো আমি৷''

আসন্ন ব্রাজিল বিশ্বকাপে ইরান খেলবে ‘এফ' গ্রুপে৷ গ্রুপে তাঁরা প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে দু'বারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা এবং নাইজেরিয়া ও বসনিয়া-হ্যারৎসেগোভিনাকে৷

এসিবি/ডিজি (ডিপিএ, উইকিপিডিয়া)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়