1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরানি আরোহী সন্ত্রাসী নন, জার্মানিতে আশ্রয়প্রার্থী

নিখোঁজ মালয়েশীয় বিমানটির আরোহীদের মধ্যে চুরি করা পাসপোর্ট নিয়ে যে দু'জন বিমানে উঠেছিলেন, তাঁদের একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে৷ তিনি ইরানের নাগরিক৷ তবে ঐ দুই ব্যক্তি কোনো সন্ত্রাসী সংগঠনের সাথে জড়িত নয় বলে ধারণা পুলিশের৷

ইরানের নাগরিক জার্মানিতে আশ্রয়প্রার্থী

মালয়েশিয়ার জাতীয় পুলিশ প্রধান খালিদ আবু বকর জানিয়েছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশের দুই নাগরিকের পাসপোর্ট চুরি করে তাঁরা বিমানে উঠেছিলেন৷ এঁদের মধ্যে একজন পুরিয়া নূর মোহাম্মদ মেহরদাদ ইরানের নাগরিক, যাঁর বয়স ১৯ বছর৷ তবে পুলিশ মনে করে, ঐ তরুণ কোনো সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্য নন৷ বরং তিনি জার্মানিতে আশ্রয় নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন বলে ধারণা তাদের৷ তবে অন্য ব্যক্তির পরিচয় এখনো বের করা যায়নি৷

পুলিশ প্রধান আরো জানান, মার্চের ১ তারিখ নূর থাইল্যান্ডের পাতায়া থেকে ফোনে ‘মিস্টার আলি' নামে দুটি টিকেট বুকিং করেছিলেন৷ থাই পুলিশের মতে, নূর ফোনে ট্রাভেল এজেন্সিকে ইউরোপের দুটি সস্তা টিকেট বুকিং দিতে বলেছিলেন৷ পাসপোর্ট দুটো থাইল্যান্ড থেকে চুরি হয় দু'বছর আগে৷ ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত পাসপোর্ট বলে কুয়ালালামপুর থেকে ঐ দু'জন যাত্রীকে চীনের ভিসা নিতে হয়নি৷

Malaysia Airlines Suche Terrorverdächtige 11.03.2014

ইরানি দুই আরোহীর ছবি দেখাচ্ছে পুলিশ

পুলিশ প্রধান সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, তাদের ধারণা মানবপাচার চক্রের সদস্যরা পাসপোর্ট দুটি চুরি করে এবং তারা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে মানবপাচার ব্যবসার সাথে জড়িত৷ যে পাসপোর্ট দুটি চুরি গিয়েছিল, তার একটি ইটালির এবং অন্যটি অস্ট্রিয়ার৷ দুটি টিকেটের একটি ছিল কুয়ালালামপুর থেকে ফ্রাংকফুর্ট আম মাইন৷ অন্য আর একটি গন্তব্য ছিল কোপেনহেগেন৷ তিনি আরো জানিয়েছেন, ছিনতাইসহ বিমানটি নিখোঁজ হওয়ার চারটি সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে তারা৷

হতাশ স্বজনরা

এদিকে, বিমানের যাত্রীদের স্বজনদের আশা ধীরে ধীরে ক্ষীণ হয়ে আসছে৷ বেইজিংয়ে নিখোঁজ বিমানটির আরোহীর এক স্বজনএএফপিকে জানালেন, ‘‘আমরা একেবারে আশা হারিয়ে ফেলেছি, দুশ্চিন্তায় এ ক'দিন আমাদের কারো ঘুম হয়নি৷ আমরা সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছি৷''

Malaysia Airlines Suche 11.03.2014

যাত্রীদের স্বজনদের আশা ধীরে ধীরে ক্ষীণ হয়ে আসছে

যাত্রীদের মধ্যে ছিলেন মালয়েশিয়ার এক নিরাপত্তা রক্ষী সুব্রামানিয়ামের ৩৪ বছর বয়সি ছেলে৷ তিনি জানালেন, ‘‘আমার তিন বছরের নাতি জিজ্ঞেস করে বাবা কোথায়? আমি তাকে এ বলে আশ্বস্ত করেছি যে, বাবা তোমার জন্য মিষ্টি কিনতে গিয়েছে৷'' তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘দয়া করে আমার ছেলেকে ফিরিয়ে দিন৷''

চীনের স্যাটেলাইট মোতায়েন

নিখোঁজ মালয়েশিয়ান বিমানের খোঁজ পেতে চীন ১০টি স্যাটেলাইট মোতায়েন করেছে৷ বিমানটি নিখোঁজ হওয়ার চার দিনের মাথায় মঙ্গলবার বেইজিং এ উদ্যোগ নিল৷ সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন স্যাটেলাইটগুলো আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ, যোগাযোগ ও উদ্ধার কার্যক্রমে সহায়ক বিষয়গুলি পর্যবেক্ষণ করবে৷ ওদিকে, নিখোঁজ বিমানের সন্ধানে তত্পরতা আরও জোরদার করতে মালয়েশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে চীন৷

অভিযান অব্যাহত

চতুর্থ দিনের মতো বিমানটি খোঁজে অভিযান চলছে৷ মালয়েশিয়া ও দক্ষিণ ভিয়েতনামের মধ্যবর্তী সাগরে তল্লাশিতে যোগ দিয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার কয়েকটি দেশ, অস্ট্রেলিয়া, চীন, নিউজিল্যান্ড এবং যুক্তরাষ্ট্রের ৪১টি জাহাজ এবং ৩৬টি বিমান৷

কিন্তু তিনদিন পার হলেও বোয়িং ৭৭৭ বিমানটির বা বিমানটির ধ্বংসাবশেষের কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি৷

বিমানটি হামলার শিকার হয়েছে এমন ব্যাখ্যা থেকে মালয়েশীয় কর্তৃ্পক্ষ দূরে সরে রয়েছে৷ তাঁরা প্রধানত ইলেকট্রনিক সাক্ষ্য-প্রমাণের ওপর নির্ভর করছেন৷ নিখোঁজ হওয়ার আগে বিমানটি যাত্রাপথ থেকে কুয়ালালামপুরের দিকে আবার ফিরে আসছিল বলে ইলেকট্রনিক সাক্ষ্যগুলো থেকে ইঙ্গিত মিলেছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা৷ তবে এই তথ্য পুরোপুরি নিশ্চিত না হলেও তদন্তকারী ও গোয়েন্দা সূত্রগুলো বিমানটির হারিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে এখনো রহস্যাবৃত বলেই স্বীকার করছে৷

শনিবার কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিংয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কিছুক্ষণ পরই লাপাত্তা হয়ে যায় মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট এমএইচ৩৭০৷ বিমানের ২৩৯ জন আরোহীর মধ্যে ১২ জন ক্রু আর বাকিরা যাত্রী৷ যাত্রীদের অন্তত ১৫২ জন চীনের, ৩৮ জন মালয়েশিয়ার, সাতজন ইন্দোনেশিয়ার, ছয়জন অস্ট্রেলিয়ার, পাঁচজন ভারতের, চারজন ফ্রান্সের এবং তিনজন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক বলে জানা গেছে৷ খুব ভালো আবহাওয়া থাকা সত্ত্বেও কন্ট্রোল প্যানেল থেকে কোনো বিপদ সংকেত না পাঠিয়েই বিমান নিখোঁজ হয়ে যাওয়ায়, ঘটনাটি নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে সন্দেহের ধুম্রজাল৷

এপিবি/ডিজি (রয়টার্স, এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন