1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরানকে আগে ‘নাক গলানো' থামাতে বলল সৌদি আরব

ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কও ছিন্ন করল সৌদি আরব৷ দু'দেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে চলায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জার্মানিসহ বেশ কিছু দেশ৷ সৌদি আরব জানিয়েছে, সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে হলে ইরানকে আগে নাক গলানো বন্ধ করতে হবে৷

সৌদি আরব মনে করে, দেশটির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ইরান বাড়াবাড়ি রকমের হস্তক্ষেপ করছে৷ তেহরানের সৌদি দূতাবাসে হামলা, অগ্নিসংযোগের ঘটনা এবং ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করার পরই সৌদি আরব ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেয়৷

সৌদি আরবে শিয়া নেতা শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকর করায় ক্ষোভে ফেটে পড়ে শিয়া অধ্যুষিত দেশ ইরান৷ তেহরানে সৌদি দূতাবাসে হামলা চালায় বিক্ষুব্ধ জনতা৷ জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করায় সৌদি সরকারের কঠোর সমালোচনা করে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা খামেনেই বলেন, ‘সৌদি আরবের ওপর আল্লাহর গজব' পড়বে৷

শনিবার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়ানো এবং রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে শিয়া নেতা শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করে সৌদি আরব৷ আরো ৪৬ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয় সেদিন৷ তবে এক দিনে ৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড হলেও বিশ্বজুড়ে তোলপাড় চলছে শেখ নিমর আল-নিমরের মৃত্যুদণ্ড নিয়ে৷

‘আরব বসন্ত' শুরু হওয়ার পর থেকে শেখ নিমর প্রকাশ্যে সৌদি আরবের রাজতন্ত্রের সমালোচনা করে আসছিলেন৷ জাতিগত বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন তিনি৷ এ বৈষম্য দূর করার জন্য দেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবিও তুলেছেন নিমর৷ ইরান ও সিরিয়ায় পড়াশোনা করা এই শিয়া নেতা ছিলেন সশস্ত্র আন্দোলনের বিপক্ষে৷

এদিকে শেখ নিমরের মৃত্যুদণ্ডের কারণে সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র; জার্মানিসহ বেশ কয়েকটি দেশ৷ উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দু'দেশের প্রতি দায়িত্বশীল আচরণ করার আহ্বান জানিয়ে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক-ভাল্টার স্টাইনমায়ার বলেছেন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধের সময় ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকা দরকার৷ সৌদি আরব জানিয়ে দিয়েছে, ইরান তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বন্ধ করলে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃস্থাপন করে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়