ইরাক সংকটের ফলে পেট্রোলিয়ামের দাম বৃদ্ধি | জার্মানি ইউরোপ | DW | 18.06.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ইরাক সংকটের ফলে পেট্রোলিয়ামের দাম বৃদ্ধি

ইরাকে চরম ইসলামপন্থিদের দৌরাত্ম্যের ফলে পেট্রোলিয়াম উৎপাদন ও সরবরাহের ক্ষেত্রে বিঘ্ন ঘটার আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে৷ ইউরোপের পুঁজিবাজারেও এর প্রভাব দেখা যাচ্ছে৷ ইউক্রেন সংকট নিয়েও দুশ্চিন্তা কাটছে না৷

ইরাক ও কেনিয়ায় নতুন করে সংকট দেখা দেওয়ায় পরিবহন ও পর্যটন সংস্থাগুলির শেয়ারের উপর চাপ বেড়েছে৷ এর অন্যতম কারণ – অদূর ভবিষ্যতে পেট্রোলিয়ামের দাম বাড়ার আশঙ্কা৷ সেই সঙ্গে ইউরোপের দোড়গড়ায় ইউক্রেন সংকটও কাটছে না৷ সে দেশের পূর্বাঞ্চলে সংঘর্ষ চলছে৷ রাশিয়া থেকে ইউক্রেন তথা বাকি ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে৷

পুঁজিবাজারে সাময়িক ধাক্কা সামলানোর ক্ষমতা ইউরোপের আছে৷ কিন্তু বেশ কিছুকাল ধরে চলে আসা সমস্যাগুলির দ্রুত সমাধান আশা করছে নে কেউ৷ ইউরো এলাকায় মূল্যস্ফীতির হার কমেই চলেছে৷ শুক্রবার প্রকাশিত তথ্য-পরিসংখ্যান অনুযায়ী, জার্মানিতে এই হার গত চার বছরের সবচেয়ে কম মাত্রায় নেমে গেছে৷ স্পেন ও ইটালির পরিস্থিতিও একই রকম৷ ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক মূল্যস্ফীতির কমে চলা হারের মোকাবিলা করতে সুদের হার কমানো সহ একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছে বটে, তবে তার ফল পেতে আরও কিছু সময় লাগবে বলে ঝরে নেওয়া হচ্ছে৷

Irak Kämpfe 16.06.2014

ইরাক ও কেনিয়ায় নতুন করে সংকট দেখা দেওয়ায় পরিবহন ও পর্যটন সংস্থাগুলির শেয়ারের উপর চাপ বেড়েছে

মূল্যস্ফীতি কম হলে ক্রেতাদের সাময়িক লাভ হয় বটে, কিন্তু সামগ্রিকভাবে অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ এদিকে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনের পর ইউরোপীয় কমিশনের পুনর্বিন্যাসের ক্ষেত্রেও জটিলতা দেখা যাচ্ছে৷ নির্বাচনের আগে জঁ ক্লোদ ইয়ুংকারকে শীর্ষ প্রার্থী করা সত্ত্বেও রক্ষণশীল শিবির এখনো তাঁকে কমিশনের প্রেসিডেন্ট করার বিষয়ে একমত হতে পারছে না৷ ফলে বকেয়া সংস্কারের কাজে বিলম্ব ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

স্পেন, ইটালি ও গ্রিস সংস্কারের পথে এগিয়ে চলেছে৷ যদিও স্পেন ও গ্রিসে চরম বেকারত্ব কাটার কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না৷ প্রধানমন্ত্রী মাটেও রেনসির নেতৃত্বে ইটালি এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সাফল্য দেখাতে পারছে৷ তবে এরপরেও সে দেশের ঋণভার কমার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না৷ এই প্রসঙ্গে ইউরোপীয় কমিশনের জ্বালানি সংক্রান্ত কমিশনর সম্প্রতি বলেছেন, গ্রিসের মতো ছোট দেশকে যে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়েছে, তার অঙ্ক যথেষ্ট কম৷ ইউক্রেন-এর চরম আর্থিক সংকট কাটাতে ইউরোপকে যদি এগিয়ে আসতে হয়, সে ক্ষেত্রে আরও অনেক গুণ বেশি আর্থিক সহায়তা দিতে হবে৷

এসবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন