1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরাক আবার উত্তপ্ত, সরকার গঠন নিয়ে অচলাবস্থা

কিছুদিন ঠিক থাকার পর ইরাকের পরিস্থিতি আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে৷ মঙ্গলবার সকাল ও রাতে দুটি বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে৷ এদিকে নির্বাচনের পর পাঁচ মাস গড়িয়ে গেলেও এখনও কোন সরকারের দেখা পাওয়া যাচ্ছেনা৷

default

বোমা হামলায় আহত একজন

প্রথম বোমা হামলাটি ছিল আত্মঘাতী৷ সেনাবাহিনীতে ভর্তি হতে আসা তরুণরাই মূলত এই হামলায় নিহত হয়েছেন৷ কারণ বাগদাদের একটি সেনা নিয়োগ কেন্দ্রে হামলাটি চালানো হয়েছিল৷ এতে মারা গেছেন প্রায় ৬০ জন৷ আর আহত হয়েছেন শতাধিক৷ গত কয়েকমাসের মধ্যে এটাই ছিল বোমা হামলায় সবচেয়ে বড় ঘটনা৷ এরপরের বোমা হামলাটি হয়েছে রাতে৷ একটি তেলের ট্যাঙ্কারে আগে থেকেই লাগানো ছিল

Barack Obama in Cairo

ওবামা বোমা হামলার নিন্দা জানিয়েছেন

বোমাটি৷ পরে সেটি বিস্ফোরিত হয়৷ এতে ৮ জন নিহত ও ৪৪ জন আহত হয়েছেন৷ দুটি বোমা হামলার দায়দায়িত্বই এখনো কেউ স্বীকার করেনি৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এই বোমা হামলার নিন্দা জানিয়েছেন৷ তিনি বলেন, ইরাক গণতন্ত্রের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে৷ আর এই বিষয়টিকে বাধা দিতে চায় একটা অংশ৷ কিন্তু তারপরও ইরাক সঠিক পথেই আছে বলে মনে করেন ওবামা৷ এসব মন্তব্য করার সঙ্গে সঙ্গে ওবামা এটাও জানিয়ে দেন যে, এই মাসেই ইরাকে মার্কিন যুদ্ধ মিশন শেষ করার ব্যাপারে তিনি আত্মবিশ্বাসী৷ ওবামার এইসব মন্তব্য সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র বিল বার্টন৷ এদিকে ইরাকে সরকার গঠন নিয়ে যে অচলাবস্থা বিরাজ করছে সেটাকে তিনি দেখছেন ইতিবাচক হিসেবে৷ গণতন্ত্র যে ইরাকে বিকশিত হচ্ছে এটা তারই একটা প্রমাণ, বলেছেন বার্টন৷

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী আইয়াদ আলাউয়ি, যাঁর দল বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নুরি আল-মালিকি'র দলের চেয়ে দুটি আসন বেশি পেয়েছে, মার্কিন বিরোধী শিয়া নেতা মোকতাদা আল সাদরের রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন বলে জানিয়েছেন৷ মাত্র দুইদিন আগে মালিকি'র দলের সঙ্গে তাঁর দলের সরকার গঠনের আলোচনা ভেঙে যায়৷ এরপরই মোকতাদা আল সাদরের সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা বললেন আলাউয়ি৷ নির্বাচনে সাদরের দল ৪০ টি আসনে জয়লাভ করে৷ এখানে একটা তথ্য জানিয়ে রাখি, মোকতাদা আল সাদরের দল কিন্তু বিপি, শেল সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কোম্পানির সঙ্গে তেল নিয়ে ইরাকের যে চুক্তি হয়েছে সেগুলো সংশোধন করে পুনরায় লেখার আহ্বান জানিয়েছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম