1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘ইরাকের প্রতিটি ইঞ্চি আইএসমুক্ত করা হবে'

টিকরিট পুনর্দখলের ঘোষণা দিয়েছে ইরাকি বাহিনী৷ তারপরই প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা, ‘ইরাকের প্রতিটি ইঞ্চি আইএসমুক্ত করা হবে'৷ ওদিকে সিরিয়ায় বড় সাফল্য পেয়েছে আইএস৷ ইয়ারমুক ফিলিস্তিনি শরণার্থী শিবির দখল করে নিয়েছে তারা৷

ইসলামি জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর সাফল্যের খবরটি নিশ্চিত করেছে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস৷ ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থাটি জানায়, দামেস্কের কাছের ইয়ারমুকে অবস্থিত ফিলিস্তিনি শরণার্থী শিবিরটির বড় একটি অংশ এখন আইএস-এর দখলে৷ তবে শরণার্থী শিবিরের কোথাও কোথাও এখনো যুদ্ধ চলছে বলেও জানিয়েছে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস৷

মোসুল দখলের মাধ্যমে ইরাকে আইএস আত্মপ্রকাশ করার পর মঙ্গলবারই সবচেয়ে বড় সাফল্যটি পেয়েছে ইরাকি বাহিনী৷ প্রায় মাস খানেক যুদ্ধের পর টিকরিট পুনর্দখলের ঘোষণা দিয়েছে তারা৷ ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদি অবশ্য টিকরিটের সাফল্যকে যথেষ্ট মনে করছেন না৷ যত দ্রুত সম্ভব দেশের অন্যান্য অংশ থেকেও আইএস-কে বিতাড়িত করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি৷

টিকরিটের অনেক ভবন থেকে এখনো কালো ধোঁয়া উড়ছে৷ থেকে থেকে ভেসে আসছে গোলাগুলির শব্দ৷ যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর সদস্যরা জানান, টিকরিটে এখনো কোথাও কোথাও আইএস-এর যোদ্ধারা রয়েছে৷

Irak Tikrit Kämpfe Eroberung Rauch

টিকরিটের অনেক ভবন থেকে এখনো কালো ধোঁয়া উড়ছে

আইএস-এর বিরুদ্ধে যুদ্ধরত এক আধাসামরিক বাহিনীর সদস্য বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, জঙ্গিরা টিকরিটের অদূরের এক পাহাড় থেকে গোলা ছুড়েছে৷ তাঁর ধারণা, আইএস যোদ্ধারা পালানোর পথ তৈরি করার জন্যই এমন হামলা চালাচ্ছে৷

এদিকে ইরাকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ আল গাবান সাংবাদিকদের বলেছেন, আইএস যোদ্ধারা টিকরিট ছেড়ে আশপাশের এলাকায় আশ্রয় নিয়েছে বলে তাঁদের ধারণা৷ আইএস টাইগ্রিস নদী অতিক্রম করে অন্য কোথাও চলে যাওয়ার চেষ্টা করছে বলেও মনে করেন তিনি৷

টিকরিট ছেড়ে গেলেও সেখানে অনেক চিহ্ন রেখে গেছে আইএস৷ অনেক ভবন এখনো বহন করছে তাদের চিহ্ন৷ আইএস যে ভবন যে কাজে ব্যবহার করতে চেয়েছে সেই ভবনের একটি নামও দিয়েছিল৷ একটি ভবনে বড় করে এখনো লেখা আছে, ‘ইসলামিক স্টেটের সম্পত্তি'৷

তবে ইরাকি বাহিনী দখল পুনরুদ্ধার করার পর থেকে শুরু হয়েছে পাল্টা লেখালেখি৷ আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন ভবনে তাঁদের গোষ্ঠীর নাম লিখতে শুরু করেছেন৷ বিভিন্ন ভবন থেকে জামাকাপড়, শ্যাম্পু এবং অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য লুটপাট করতেও দেখা গেছে আধা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের৷

এসিবি/এসবি (এএফপি,রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়