1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইরাকের পুনর্গঠনে অংশ নিতে জার্মানির তৎপরতা

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাক পুনর্গঠনে আরও বেশি সহায়তা করতে চায় জার্মানি৷ ইরাকে ছয়দিনের সফরের প্রথমদিন এই বার্তাই দিলেন জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে৷ এদিকে বাগদাদে একের পর এক বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ হারিয়েছে ১৩ জন৷

default

নুরি আল মালিকির সঙ্গে বৈঠকে ভেস্টারভেলে

লক্ষ্য বাণিজ্য বৃদ্ধি

শনিবার ইরাক সফরের শুরুতে ভেস্টারভেলে বৈঠক করেছেন ইরাকের প্রেসিডেন্ট জালাল তালাবানির সঙ্গে৷ এছাড়া প্রধানমন্ত্রী নুরি আল মালিকি এবং স্পিকার ওসামা আল নুজাফির সঙ্গেও তিনি দেখা করেছেন, কথা বলেছেন৷ ইরাকি নেতৃবৃন্দের সঙ্গে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বৈঠকের মূল বিষয় ছিল ইরাকের পুনর্গঠনে জার্মানির আরও সংশ্লিষ্টতা৷ ইরাক যুদ্ধের পর সেদেশের তেলকূপগুলোর দখল মূলত যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেনের কাছেই গিয়েছে৷ এবার ইরাকের অবকাঠামোগত পুনর্গঠনে অংশ নিতে চায় জার্মানি৷ সেই কারণে এবার ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের নিয়ে বাগদাদ গিয়েছেন জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রী৷ সেখানে তিনি বলেছেন, আগামী ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ যে নতুন সরকার গঠিত হতে যাচ্ছে ইরাকে তাদের সঙ্গে বাণিজ্যিক খাতে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে জার্মানি আগ্রহী৷ একই সঙ্গে তিনি ইরাকে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে জার্মানির সহযোগিতার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন৷

Friede in Basra

ইরাক যুদ্ধে অংশ নেয়নি জার্মানি

ইতিবাচক সাড়া

উল্লেখ্য, ইরাকের বর্তমান প্রশাসন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত৷ অন্যদিকে জার্মানি মার্কিন নেতৃত্বাধীন ইরাক যুদ্ধে অংশ নেয়নি৷ তবে এরপরও ইরাকি প্রধানমন্ত্রী নুরি আল মালিকি জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বক্তব্যে সায় দিয়েছেন৷ তিনি বলেছেন, তাঁরাও চান জার্মানির সংস্থাগুলো ইরাকে আরও বেশি করে আসুক এবং কাজ করুক৷ জানা গেছে, দুই পক্ষের মধ্যে শনিবার বিনিয়োগ নিয়ে একটি চুক্তিও হয়ে গেছে৷ উল্লেখ্য, একসময় জার্মানি ছিল ইরাকের অন্যতম বাণিজ্যিক অংশীদার৷ তবে ইরাক যুদ্ধের পর সেটি বদলে গেছে৷ তবে গত বছরের তুলনায় এই বছর দুই দেশের বাণিজ্যের পরিমাণ বেশ বেড়েছে৷

সঙ্কটপূর্ণ নিরাপত্তা

এদিকে বাগদাদের নিরাপত্তা পরিস্থিতি আবারও সঙ্কটপূর্ণ হয়ে উঠেছে৷ শনিবার একাধিক বোমা হামলায় ১৩ ব্যক্তি নিহত হয়েছে৷ বাগদাদের উত্তরের আল কাধিমিয়া এলাকায় একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরিত হলে ১১ জন শিয়াপন্থী মুসলমান প্রাণ হারায়৷ অন্যদিকে, আল শোয়ালা জেলায় আরও একটি বোমা বিস্ফোরণে দুই জন নিহত হয়৷ ইরাকি পুলিশ জানিয়েছে, বাগদাদের নানা জায়গায় বোমা বিস্ফোরণে প্রায় একশ মানুষ আহত হয়েছে৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই