1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ইমেজ সংকট কাটিয়ে উঠতে মরিয়া পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড

নানা কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে এখন ভয়াবহ ইমেজ সংকটে ভুগছে পাকিস্তানের ক্রিকেট৷ ফলে ক্রিকেটারদের আর্থিক স্বচ্ছলতাও পড়েছে সংকটে৷ এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আইপিএল ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের দিকে নজর দিয়েছে পিসিবি৷

Pakistan, players, celebrate, Shoaib Malik, England, Twenty,20, World, Cup, cricket ইমেজ, সংকটে, পাকিস্তানি, ক্রিকেট স্কোয়াড পাকিস্তান, বোর্ড

ইমেজ সংকটে থাকা পাকিস্তানি ক্রিকেট স্কোয়াড (ফাইল ছবি)

তবে সমস্যা হলো, আগামী বছর অনুষ্ঠিতব্য আইপিএল এ কোন পাকিস্তানি ক্রিকেটার খেলতে পারছেন না৷ অন্তত এখন পর্যন্ত পরিস্থিতি সেরকম৷ কারণ গত বুধবার আইপিএল কর্তৃপক্ষ তাদের সম্ভাব্য ৪১৬ খেলোয়াড়ের যে তালিকা প্রকাশ করেছেন তাতে কোন পাকিস্তানি খেলোয়াড়েরই জায়গা হয়নি৷ ফলে গত দুই আসরের মত আগামী আসরেও বড় একটি অঙ্কের উপার্জন থেকে বঞ্চিত হবেন পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা, যা একের পর এক ফিক্সিং কেলেঙ্কারি জর্জরিত দলের জন্য খুবই প্রয়োজন৷

অথচ এই নিয়ে ভারতের আইপিএল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তেমন সাড়া পাচ্ছে না পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ড৷ শনিবার পিসিবির কর্মকর্তা সুবহান আহমেদ এই অভিযোগ করে বলেন, ‘‘আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরণের কাগজপত্র দেওয়া হয়েছে৷ আমরা তাদের কাছে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণের ব্যাপারে জানতেও চেয়েছি৷ কিন্তু এখন পর্যন্ত তারা কোন উত্তর দেয়নি৷''

এদিকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আরও ম্যাচ বাড়ানোর চেষ্টা করছে পিসিবি৷ উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ মাসের পর পাকিস্তানে কোন আন্তর্জাতিক টেস্ট কিংবা ওয়ানডে সিরিজ হয়নি৷ ওই সময় লাহোরে সফররত শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সশস্ত্র হামলার ঘটনা ঘটলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পরিষদ বা আইসিসি পাকিস্তানে ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনের অনুমতি বাতিল করে৷ এছাড়া আগামী বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশের তালিকা থেকেও তাদের বাদ দেওয়া হয়৷ এরপর পাকিস্তানের হোম ম্যাচগুলো সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ পিসিবির কর্মকর্তা সুবহান আহমেদ জানালেন, শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ আয়োজনের জন্য তাঁরা চেষ্টা করে যাচ্ছেন৷ বিশেষ করে ইংল্যান্ডের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া গেছে বলে জানালেন তিনি৷ আগামী বছর না হলেও ২০১২ সালের জানুয়ারি মাসে এই সিরিজ হতে পারে৷ আর সম্ভাব্য নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাত তাদের বিবেচনায় রয়েছে৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন