1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইন্দোনেশিয়ায় শিশুকে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

ইন্দোনেশিয়ায় যৌন অপরাধের শাস্তিকে রাষ্ট্রপতির অনুশাসনের মাধ্যমে আরো জোরদার করলেন প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো৷ সাম্প্রতিক কিছু গণধর্ষণের ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় সে দেশের প্রেসিডেন্ট এমন উদ্যোগ নিলেন৷

গত এপ্রিল মাসের ৪ তারিখে সুমাত্রা দ্বীপের বেংকুলুতে এক ১৪ বছরের কিশোরী হেঁটে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার সময় একদল পানোন্মত্ত পুরুষ ও কিশোর তাকে ধরে নিয়ে যায়৷ এর বেশ কয়েক দিন পরে মেয়েটিকে জঙ্গলের মধ্যে পাওয়া যায়, বাঁধা অবস্থায়৷ সে তখন মৃত৷

এই ঘটনার ফলে দেশ জুড়ে যে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়, তার চাপেই যে উইডোডো এই পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হলেন, এ কথা নতুন ডিক্রির সমালোচকরাও বলছেন৷ তবে ঘটনা হলো এই যে, ইন্দোনেশিয়ায় এ বছর প্রায় আড়াই হাজার নারী নির্যাতনের ঘটনা নথিবদ্ধ হয়েছে, তার মধ্যে ধর্ষণের ঘটনা ছিল ৬০০৷ শিশু নির্যাতন ও শিশু ধর্ষণের ঘটনাও আছে এর মধ্যে৷

২০০২ সালের শিশু সুরক্ষা আইনে এবার যুক্ত হলো কেমিক্যাল ক্যাস্ট্রেশন, অর্থাৎ রাসায়নিক সেবন করিয়ে লিবিডো বা যৌন কামনা কমিয়ে দেওয়া এবং আরো বড় কথা, মৃত্যুদণ্ড৷ কমপক্ষে ১০ বছর ও সর্বোচ্চ ২০ বছর কারাদণ্ডেরও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে৷ এছাড়া ছাড়া পাবার পরেও যৌন অপরাধীদের পায়ে ইলেকট্রনিক বেড়ি পরে থাকতে হবে৷

উইডোডো এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, ‘‘শিশুদের বিরুদ্ধে যৌন অপরাধ লক্ষণীয়ভাবে বাড়ার পরিপ্রেক্ষিতে জরুরি ভিত্তিতে এই আইন প্রণয়ন করা হয়েছে৷'' ইন্দোনেশিয়ার মানবাধিকার মন্ত্রী ইয়াসোনা লাওলি এর সঙ্গে যোগ করেছেন যে, যে সব অপরাধীর বস্তুত নিপীড়িত শিশুদের অভিভাবকের দায়িত্ব নেওয়া উচিত ছিল, তাদের ক্ষেত্রেই বর্ধিত দণ্ডাদেশ প্রযোজ্য হবে৷ ‘‘কাজেই এটা শুধু নপুংসকরণের আইন নয়’’, – ইয়াসোনা তাঁর বিবৃতিতে বলেছেন৷

শিশু ধর্ষণকারীদের জন্য বর্ধিত সাজা ইন্দোনেশিয়ার জনগণের কাছে প্রশংসাই পেয়েছে, যদিও মানবাধিকার আন্দোলনকারীরা বিশেষ সুখি নন৷ তাঁরা বলছেন, নতুন ডিক্রি কিছুটা লোক-দেখানো প্রতিক্রিয়া এবং বর্ধিত সাজা এক ধরনের প্রতিহিংসার সমতুল৷ বাস্তবে সরকারের যৌন অপরাধের কার্যকারণ সম্পর্কে সম্যক ধারণা নেই৷ ওদিকে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন সাধারণভাবে মৃত্যুদণ্ডের বিরোধী ও রাসায়নিক নপুংসকরণের ভীতি থেকে যৌন অপরাধ কমবে বলে কমিশনের কিছু সদস্য মনে করেন না৷

এসি/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স)

শিশুকে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যদণ্ড – আপনার কী মনে হয়? আপনি কি এমন শাস্তিকে সমর্থন করেন?

নির্বাচিত প্রতিবেদন