1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ইন্টারনেট সেন্সরশিপ ঠেকাতে বিশেষ সফটওয়্যার

ইন্টারনেট সেন্সরশিপ, ফিল্টারিং বা ব্লকিংয়ে বেশ এগিয়ে গেছে কয়েকটি দেশ৷ বিশেষ করে ইরানে ইন্টারনেটের উপর কড়াকড়ি খুব বেশি৷ চীনেও মাঝামাঝে শোনা যায় এমন কথা৷ কিন্তু এবার সমাধান নিয়ে হাজির প্রোগ্রামাররা৷

default

এবার কি করবে ইরানের সাইবার আর্মি?

মার্কিন প্রোগ্রামাররা শোনাচ্ছে এমন সফটওয়্যারের কথা যা ফিল্টারিংতো কাটাবেই, একই সঙ্গে লুকিয়ে রাখবে ব্যবহারকারীর ঠিকানাও৷ শুধু তাই নয়, এটি চলবে খুব কম গতির ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রেও৷ আর পাওয়া যাবে বিনা খরচায়৷

সফটওয়্যারটির নাম হেস্ট্যাক, নির্মাতা সান ফ্রান্সিসকোয় অবস্থিত সেন্সরশিপ রিসার্চ সেন্টার বা সি.আর.সি৷ এই প্রসঙ্গে সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক অস্টিন হিপ জানিয়েছেন, হেস্ট্যাক ব্যবহারের ফলে মনে হবে ব্যবহারকারী সবসময়ই সাধারণ কোন ওয়েবসাইট ভিজিট করছেন৷ মনে হবে ওয়েদার ডট কম কিংবা কোন ছবি ডাউনলোড করছেন৷ অথচ এর আড়ালে তিনি যেকোন ফিল্টারড ওয়েবসাইটও পরিদর্শন করতে পারবেন৷ ফলে কোন ফিল্টারিং সফটওয়্যার সেটিকে আটকাতে পারবে না৷

বলাবাহুল্য, এমন সফটওয়্যার এই মুহূর্তে ইরানের সাধারণ মানুষের জন্যই বেশি প্রয়োজন৷ কারণ সেখানে সেন্সরের চর্চাটা বড় বেশি৷ আর তাই মার্কিন সরকারও সফটওয়্যারটিকে ইরানে রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে৷ ফলে খুশি অস্টিন হিপ৷ জানালেন, হেস্ট্যাকের মাধ্যমে আমরা ইরানের সাধারণ মানুষকে সরকারি ফিল্টারমুক্ত ইন্টারনেটের সন্ধান দেবো৷

এদিকে, ইরানের সংবাদমাধ্যমগুলোর দাবি, অ্যান্টি-ফিল্টারিং সফটওয়্যারটির মাধ্যমে আসলে সি.আই.এ গুপ্তচরবৃত্তি বাড়াতে চাচ্ছে৷ শুধু তাই নয়, এটি ইরান সরকারের বিপক্ষে রাজনৈতিক বিরোধিতা বাড়ানোর একটি চেষ্টা বলে দাবি পত্রিকাগুলোর৷

প্রসঙ্গত, হেস্ট্যাক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে৷ তবে, ইরানের জন্য রয়েছে কিছুটা বাড়তি সতর্কতা৷ সেখানকার ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে সি.আর.সি'র অনুরোধ, দয়া করে সিডি, পেনড্রাইভের কিংবা অফলাইন নেটওয়ার্কের মাধ্যমে যেন ছড়িয়ে দেয়া হয় এই সফটওয়্যারকে৷ কেননা ইন্টারনেট থেকে সরাসরি ডাউনলোড করতে গেলে ধরা পড়ার আশঙ্কা থাকতে পারে৷

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়