1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ইন্টারনেট ঠিকানা নিয়ে বাণিজ্য

ডোমেইন পার্কিং নিয়ে কিছুদিন আগে আক্ষেপ প্রকাশ করেছিলেন আমাদের এক পাঠক৷ বাংলায় ইন্টারনেট ঠিকানা চালুর আগেই কে নাকি বাংলাদেশ.com নামক বাংলা ভাষার ডোমেইনটি কিনে ফেলেছে৷ এখন আবার বিক্রির জন্য পার্ক করে রেখেছে সেই ঠিকানা৷

Screenshot, Website, Bangladesh, Dhaka, Internet, techtunes.com.bd, ডটকম, ডোমেইন, ডোমেন, বাংলাদেশ, ঢাকা, পার্কিং, ইন্টারনেট, বাণিজ্য, বিজ্ঞান,

টেকটিউনস ডটকম ডটবিডি'র স্ক্রিনশট

আচ্ছা ডোমেইন পার্কিং কী? এটা কেনই বা করে? কীভাবেই বা করে? এরকম প্রশ্ন যে কারো মনেই আসতে পারে৷ উইকিপিডিয়া'র ভাষ্য অনুযায়ী, ডোমেইন পার্কিং হচ্ছে নির্দিষ্ট নামের কিছু ইন্টারনেট ঠিকানা কিনে রাখা, কিন্তু ব্যবহার না করা৷ এটির কয়েকটি দিক আছে, অনেকে নিজের প্রয়োজনে কিছু ইন্টারনেট ঠিকানা কিনে রাখেন যাতে ভবিষ্যতে সেটা কাজে লাগাতে পারেন৷ কিংবা অন্য কেউ যাতে সেসব ঠিকানার দখল নিতে না পারে৷ অনেকে আবার ইন্টারনেট ঠিকানা কিনে সেগুলোকে চড়া দামে বিক্রির জন্য জমা করে রাখেন৷ এই যেমন আমাদের পাঠকের দাবি অনুযায়ী, বাংলাদেশ.com৷ এই ডোমেইন নেমটি বাংলাদেশ সরকারের প্রয়োজন৷ অথচ অন্য কেউ এটাকে কিনে রেখে দিয়েছেন, বিক্রির জন্য৷

ডোমেইন পার্কিং বিষয়টি আরো সহজে বোঝার জন্য আমরা কথা বলি জনপ্রিয় ব্লগসাইট টেকটিউনস ডটকম ডটবিডি'র কর্ণধার মোহাম্মদ শাহজালাল এর সঙ্গে৷ তিনি বলেন, এটি একটি বিশেষ ব্যবস্থা যেখানে, যেকেউ যেকোন ডোমেইন কিনে জমা রাখতে পারে৷

শাহজালাল নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলেন, তাঁর নিজের সাইটটির ডটকম সংস্করণও নাকি একজন ব্যক্তিগত দখলে রেখেছে৷ এখন সেটি বিক্রি করতে চাইছে চড়া দামে৷ মাত্র আট বা দশ ডলারে যে ডোমেইন কেনা যায়, পার্ক করে সেটির দাম হাঁকা হচ্ছে ৩৫ হাজার মার্কিন ডলার৷

Neue eu Domain

ইইউ ডোমেইন (ফাইল ছবি)

এছাড়া ডোমেইন পার্ক করে রেখেও পয়সা আয় সম্ভব৷ কারণ ডোমেইন পার্কিং সেবাদাতারা জমা রাখা ইন্টারনেট ঠিকানাগুলোয় বিজ্ঞাপন প্রচার করে থাকে৷ এই বিজ্ঞাপন থেকে অর্জিত অর্থের একটি অংশ পান মালিকরা৷ অনেক বাংলাদেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীও এভাবে পয়সা আয় করছেন৷

ডোমেইন পার্কিং এর এই চর্চা আইনগতভাবে বন্ধের সুযোগ নেই বলে জানান শাহজালাল৷ কেননা, ইন্টারনেটে যেকেউ যেকোন ডোমেইন কিনতে পারে৷ তাছাড়া অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে, যেগুলো ডোমেইন পার্কিংকে উৎসাহিত করে৷ এই তথ্য প্রযুক্তি ব্যবসায়ী জানালেন, সিডো ডটকম নামক একটি সাইট আছে যারা ডোমেইন পার্কিংয়ে সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করে৷

উল্লেখ্য, বাংলায় ডোমেইন নেম বা ইন্টারনেট ঠিকানা চালু হওয়ার কথা ছিল এই মার্চ থেকে৷ ইতিমধ্যে ডট বাংলা ডোমেইন এর অনুমোদন দিয়েছে ওয়েব ঠিকানা বরাদ্দকারী প্রতিষ্ঠান আই.সি.এ.এন.এন৷ বাংলা বর্ণমালায় ইন্টারনেট ঠিকানা লেখা সম্ভব হবে এই অনুমোদনের ফলে৷ তবে, এই প্রক্রিয়া পুরোপুরি কার্যকর হতে আরো সময় লাগবে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সংস্থাটি৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক