1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ইন্টারনেটে এখনো অবহেলিত মুক্তিযুদ্ধ

বাংলা ব্লগগুলোতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক ব্যাপক আলোচনা দেখা যায়৷ এসব আলোচনায় তথ্যের চেয়ে আবেগটাই যেন কাজ করে বেশি৷ তাই, ইন্টারনেটে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে আনুষ্ঠানিক তথ্যের প্রয়োজন রয়েছে৷ কিন্তু সেরকম কি আদৌ রয়েছে?

default

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কিছু প্রকাশনা

সরকারি ওয়েবসাইটের বেহাল দশা

বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণলায়ের দিকেই তাকানো যাক৷ ওয়েবসাইটের ঠিকানা: http://www.molwa.gov.bd/৷ এই ঠিকানায় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে কোনরকমে এক পাতায় তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে৷ আর শুধু বীরশ্রেষ্ঠদের খানিকটা বিবরণ রয়েছে৷ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাতই মার্চের ভাষণের একটি ভিডিও পাওয়া যাবে এতে৷ এর বাইরে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে তেমন কোন তথ্য যোগ করা হয়নি সাইটটিতে৷ নেই কোন ছবির সংগ্রহ৷ অথচ সরকারি এই ওয়েবসাইটটিতেই সবচেয়ে বেশি তথ্য থাকা উচিত৷

সমৃদ্ধ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ওয়েবসাইটটি এই দিক থেকে বেশ সমৃদ্ধই বলতে হবে৷ ইংরেজি এবং বাংলা ভাষায় সাজানো এই সাইটটি বিদেশিদের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে খানিকটা ধারণা দিতে সক্ষম হবে৷ সাইটটিতে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের দিনপঞ্জি৷ ১৯৭১ এর ফেব্রুয়ারি থেকে নভেম্বর পর্যন্ত নানা তথ্য পাওয়া যাবে এখান থেকে৷ এছাড়া রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার বিভিন্ন ভিডিও৷ আরো পাবেন মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের বিভিন্ন গ্যালারি সম্পর্কে তথ্য৷ তবে বিজয়ের মাসে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের সাইটটির প্রথম পাতা ফাঁকা থাকায় পাঠক খানিকটা বিভ্রান্ত হতে পারেন৷ এটির ঠিকানা: http://www.liberationwarmuseum.org/৷

Bangladesch völkerrechtlich unabhängig von Pakistan

মুক্তিযুদ্ধের একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত

ইন্টারনেটে মুক্তিযুদ্ধ

সরকারিভাবে ইন্টারনেটে মুক্তিযুদ্ধের সমৃদ্ধ তথ্য ভাণ্ডার না থাকলেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত বিভিন্ন ইন্টারনেট পাতার সন্ধান পাওয়া যায়৷ হালের ফেসবুকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক পাতার সংখ্যা গোটা দশেক৷ এসবের মধ্যে আবেগতাড়িত নানা উদ্যোগই বেশি৷ প্রকৃত অর্থে গোছানো কোন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক পাতা ফেসবুকে নেই৷ তবে, ইউটিউবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সাড়ে ছয়শ ভিডিও রয়েছে৷ উইকিপিডিয়াতেও বিভিন্ন ভাষায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে৷ বাংলাদেশের ইন্টারনেট অ্যাক্টিভিস্ট আরিফ জেবতিক জানান, ব্লগাররাও এখন উইকিপিডিয়ায় মুক্তিযুদ্ধের তথ্য সন্নিবেশে এগিয়ে এসেছে৷

তথ্যের ঘাটতি

জেনোসাইডবাংলাদেশ ডটঅর্গ নামক একটি ওয়েবসাইটে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে বিশদ বিবরণ রয়েছে৷ যুদ্ধের সময়কার বিভিন্ন ছবি এবং ভিডিও পাওয়া যাবে সাইটটিতে৷ রয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বিভিন্ন সংবাদও৷ টাইমলাইন অংশে ১৯৪৭ থেকে ১৯৭৫ পর্যন্ত বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহ রয়েছে এই অনলাইন তথ্য ভাণ্ডারে৷ তবে এই সাইটটির সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের কোন আনুষ্ঠানিক সম্পৃক্ততা আছে কিনা, জানা যায়নি৷ এভাবে বিচ্ছিন্নভাবে বাংলাদেশের বর্তমান প্রজন্ম ইন্টারনেটে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক তথ্য প্রকাশের চেষ্টা করছে বলে জানান আরিফ জেবতিক৷ তবে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত সঠিক তথ্যের ঘাটতি অনেক বেশি৷

যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে ওয়েবসাইট

এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবি নিয়ে একাধিক ওয়েবসাইট রয়েছে৷ ওয়ারক্রিমিনালসবিডি ডটঅর্গ সাইটটিতে রাজাকার, আল-বদর, আল-শামসসহ মুক্তিযুদ্ধের সময়কার শান্তিবাহিনীর তালিকা তুলে দেয়া হয়েছে৷ এছাড়া কিছু পাকিস্তানি সেনারও নাম রয়েছে এতে৷ এই ওয়েবসাইটের উদ্যোক্তাদের সম্পর্কে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি৷ মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য নেই

ইন্টারনেটে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পর্কে তথ্যেও বেশ ঘাটতি লক্ষ করা যায়৷ বীর উত্তম, বীর বিক্রম কিংবা বীর প্রতীকদের নিয়ে নেই কোন তথ্য ভাণ্ডার৷ গুনণীজন ডটঅর্গ ডটবিডি নামক একটি ওয়েবসাইটে কয়েকজন সেক্টর কমান্ডার সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যায়৷ তবে এধরনের উদ্যোগ বেশ সীমিত৷

উল্লেখ্য, বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দিকে মনোযোগ দিচ্ছে৷ ইন্টারনেটে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস প্রকাশের মাধ্যমে এই উদ্যোগ আরো সমৃদ্ধ হতে পারে৷ কেননা, দেশের ইতিহাস নিয়ে বিভ্রান্তি বড় বেশি৷ তাই, বর্তমান প্রজন্মের জন্য ইন্টারনেটে একটি আনুষ্ঠানিক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক তথ্য ভাণ্ডার খুবই জরুরি৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক