1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ইডেন গার্ডেনকে বাদ না দিতে আইসিসিকে ভারতের অনুরোধ

বিশ্বকাপ আয়োজনে দেশের মান বাঁচাতে এবার পশ্চিম বঙ্গের ক্রিকেট কর্তাদের পাশে এসে দাড়ালো ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিসিআই৷ ইডেন গার্ডেনকে বিশ্বকাপ থেকে বাদ না দেওয়ার জন্য তারা অনুরোধ করেছে আইসিসিকে৷

default

কোলকাতার ইডেন গার্ডেন

এর আগে গত অক্টোবর মাসে কমনওয়েলথ গেমসের অপর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে বেশ লজ্জার মুখে পড়েছিল ভারত৷ এরপর এবার বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আবারও একইরকম ঘটনা ঘটালো কলকাতার ইডেন গার্ডেন স্টেডিয়াম৷ গত ২৫ জানুয়ারি পরিদর্শন শেষে আইসিসি জানিয়ে দেয় যে ইডেন গার্ডেন বিশ্বকাপ ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তুতি থেকে অনেক দূরে৷ তাই ভেন্যুর তালিকা থেকে ইডেন গার্ডেনকে বাদ দেওয়ার ঘোষণা দেয় আইসিসি৷ এই ঘোষণার পরপরই পশ্চিম বঙ্গের ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল বা সিএবি প্রধান জগমোহন ডালমিয়া বিসিসিআইকে চিঠি লেখেন৷ তাতে তিনি ইডেন গার্ডেনকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য আইসিসিকে অনুরোধ করার জন্য বলেন বিসিসিআই কর্মকর্তাদের৷ উল্লেখ্য, ডালমিয়া নিজেও একসময় আইসিসির প্রধান ছিলেন৷ বিসিসিআইকে লেখা চিঠিতে ডালমিয়া জানান, আইসিসি যদি তাদের আরও একটু সময় দেয় তাহলে তারা দ্রুত বাকি কাজ শেষ করতে পারবেন৷ আগামী ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ইডেন গার্ডেনের সংস্কার কাজ শেষ হবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷

জগমোহন ডালমিয়ার এই অনুরোধে ইতিবাচক সাড়াই দিয়েছে বিসিসিআই৷ গতকাল শুক্রবার বিসিসিআই প্রধান শশাংক মনোহর জানিয়েছেন যে তারা আইসিসিকে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য অনুরোধ করে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন৷ মনোহর জানিয়েছেন, তিনি ব্যক্তিগতভাবেও আইসিসি প্রধান লোরগাতকে অনুরোধ করেছেন যেন ইডেন গার্ডেনের মত একটি ঐতিহ্যবাহী ভেন্যুকে আরও একটু সময় দেয়৷ তবে আইসিসি এই অনুরোধে সাড়া দেবে কিনা সেটি এখনও বোঝা যাচ্ছে না, কারণ ইতিমধ্যে ক্রিকেটের এই সর্বোচ্চ সংস্থা বিসিসিআইকে ইডেন গার্ডেনের বিকল্প ভেন্যু ঠিক করার নির্দেশ দিয়েছে৷ যদি তাই হয় তাহলে কপাল পুড়বে কোলকাতার ক্রিকেট প্রেমীদের৷ কারণ ১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল ও ১৯৯৬ এর ঘটনাবহুল সেমিফাইনালের পর এই প্রথম বিশ্বকাপ ম্যাচ দেখার সুযোগ পাচ্ছিলেন তারা৷ উল্লেখ্য, ইডেন গার্ডেনে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্যায়ের চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল যার মধ্যে রয়েছে ভারত ও ইংল্যান্ডের মত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন