1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ইঞ্জিনের আগুনে কপাল পুড়লো ফেটেলের

প্রথম পছন্দের যিনি, তিনি কিন্তু জিতলেন না৷ গাড়ির ইঞ্জিনে ত্রুটির কারণে বিজয়ের মুকুটটি তিনি পরতে পারলেন না৷ ছিটিয়ে দিতে পারলেন না শ্যাম্পেন৷

default

ফার্নান্দো আলোন্সো

ফর্মুলা ওয়ানের দক্ষিণ কোরিয়ার গ্র্যান্ড প্রিক্সের মুকুটটি চলে গেলো ফেরারির চালক ফার্নান্দো আলোন্সোর মাথায়৷

রবিবার বৃষ্টি বিঘ্নিত দিনের শুরুতে বেশ ভালোই চলছিল জার্মান খেলোয়াড় সেবাস্টিয়ান ফেটেল-এর গাড়ি৷ রেড বুল দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য চালক তিনি৷ এর আগে জাপান গ্র্যান্ড প্রিক্সে যিনি জিতে নিয়েছিলেন শিরোপা৷ সেই ফেটেল বেশ চালাচ্ছিলেন৷ সকলকে পিছনে ফেলে তাঁর গাড়ি ছুটে চলছে৷ বিজয় আর কিছু সময়ের মধ্যে৷ কিন্তু কি যে হলো তাঁর গাড়িতে! অকস্মাৎ আগুন লেগে গেলো ইঞ্জিনে৷ দুর্ভাগা হয়তো একেই বলে৷ নিশ্চিত বিজয়ের মুকুটটি হাতছাড়া হয়ে গেলো তাঁর৷ অথচ বাছাই পর্বে তিনিই ছিলেন এক নম্বরে৷ বাছাই পর্বে তাঁর পরই যিনি ছিলেন, তিনিও একই দল, মানে রেড বুলের সদস্য৷ অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড় মার্ক ওয়েবার৷ তিনিও বেশ চালাচ্ছিলেন আজ৷ রবিবারের মূল প্রতিযোগিতাতেও তিনি ছিলেন তাঁর টিমমেট ফেটেল-এর ঠিক পরেই৷

Formel 1 Ungarn Trainig Sebastian Vettel Flash-Galerie

পারলেন না সেবাস্টিয়ান ফেটেল

গাড়ির ইঞ্জিনে কিংবা অন্য কোন এক সমস্যায় পড়ে তাঁরও গাড়ির গতিপথ গেল বদলে৷ দ্রুত গিয়ে আছড়ে পড়লেন পাশের দেয়ালে৷ প্রাচীরে ধাক্কা খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর গাড়ি হয়ে গেলো বিকল৷ তিনি ছিটকে গেলেন ম্যাচ থেকে৷ এরপরেই ছিলেন সেবাস্টিয়ান ফেটেল৷ তিনিও কিছুসময় পরে অবসর নিলেন এই দক্ষিণ কোরীয় আসর থেকে৷

আর গেমস শেষ হবার যে লাইন, তাতে পতাকা তুলে ধরার সময়ে যে গাড়িটি বিজয় রেখায় এসে দাঁড়ালো, সেই রেসিংকারটি ছিল ফেরারির চালক ফার্নান্দো অলন্সোর৷ শেষ হাসি তিনিই হাসলেন৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন