1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ইউসেইন বোল্ট মরসুম শেষ করলেন

শনিবার ওয়ারশ’য় ইতিহাসের দ্রুততম ইনডোর ১০০ মিটার দৌড়নোর পর এ বছর বোল্ট আর ট্র্যাকে নামছেন না, অন্তত প্রতিযোগিতার জন্য নয়৷ তাঁর চোখ এবার ২০১৫ সালের বেইজিং এবং ২০১৬ সালের ব্রাজিলের দিকে৷

default

অ্যাথলেটিক্সের ইতিহাসে নিজের নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখার মতো সোনা তো এখনই বোল্টের ভাঁড়ারে রয়েছে

ইউসেইন বোল্ট চলতি সিজনটা শুরুই করেন পায়ের পাতার আর পায়ের ডিমের চোট নিয়ে৷ এ মরসুমে তিনি দৌড়েছেন – মানে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন – মাত্র তিনবার: গ্লাসগোর কমনওয়েল্থ গেমস-এ স্বদেশ জামাইকার হয়ে ‘চারবার ১০০ মিটার' রিলেতে অংশ নিয়েছেন; দ্বিতীয়ত, রিও ডি জানেরোর সুবিখ্যাত কোপাকাবানা সৈকতে একটি প্রদর্শনী ১০০ মিটার দৌড়ে অংশ নিয়েছেন; তৃতীয়ত, শনিবার ওয়ারশ'য় ইনডোর ১০০ মিটার দৌড়৷ বলা বাহুল্য, তিনটি দৌড়েই জিতেছেন ইউসেইন বোল্ট৷

ওয়ারশ'য় রেকর্ড সময়ে জেতার একদিন পরেই বোল্টের কোচ গ্লেন মিলস ঘোষণা করলেন – এবং বোল্টের ম্যানেজার রিকি সিম্স সেই ঘোষণার যাথার্থতা নিশ্চিত করলেন – যে, বোল্ট আর এই সিজনে প্রতিযোগিতামূলক দৌড়ে নামছেন না৷

Leichtathletik WM 2013 Moskau Usain Bolt

‘‘বোল্ট নামছেন শুনলে স্টেডিয়ামে মানুষ ধরে না৷ আর বোল্ট বাদে? সে দুঃখের কথা না হয় না-ই শুনলেন’’

প্রসঙ্গত, ওয়ারশ'র জাতীয় ফুটবল স্টেডিয়ামে বোল্ট ১০০ মিটার দৌড়ন ৯ দশমিক ৯৮ সেকেন্ডে, যা কিনা একটা ইনডোর রেকর্ড৷ অপরদিকে এ-ও সত্য যে, তিনটি দৌড়ের কোনো দৌড়েই বোল্টকে ঝলসে উঠতে দেখা যায়নি, রূপকথার বেড়াল জাদু বুট পা'য়ে দিয়ে যেরকম মাইল জোড়া পা ফেলে, সেরকম ভাবে ‘উড়ে' যেতে দেখা যায়নি৷ এ বোল্ট যেন বাকি দৌড়বীরদের মতোই মর্ত্যের মানুষ, নশ্বর অ্যাথলিট৷ বলতে কি, এ বছর বোল্ট প্রথমবার ১০ সেকেন্ডের কমে ১০০ মিটার দৌড়লেন ঐ ওয়ারশ'তেই!

অতঃপর বোল্ট নির্দ্বিধায় মরসুমের বাদবাকি দৌড় বাতিল করলেন, ওদিকে এই বৃহস্পতিবারেই তাঁর জুরিখে আইএএএফ-এর ডায়মন্ড লিগ ফাইনালে দৌড়নোর কথা৷ জুরিখের উদ্যাক্তারা জানিয়েছেন, ম্যানেজার গ্লেন মিলস ‘‘মনে করেন যে, (বোল্ট) সুস্থ এবং চোট-মুক্ত থাকা অবস্থাতেই (মরসুম) শেষ করা উচিত'': ভাগ্যিস সাংবাদিকরা জুরিখ ‘মিট'-এর পরিচালক প্যাট্রিক ম্যাজিয়ারকে জিজ্ঞাসা করেননি, ‘তবে আপনার মুখ অতো বেজার কেন?' উত্তরটা সোজা: বোল্ট নামছেন শুনলে স্টেডিয়ামে মানুষ ধরে না৷ আর বোল্ট বাদে? সে দুঃখের কথা না হয় না-ই শুনলেন৷

তবুও ম্যাজিয়ার দেখিয়েছেন তিনি সমঝদার ও সহানুভূতিশীল: ‘‘ইউসেইন-এর দেহ বিগত কয়েক বছরে দারুণ সব পার্ফর্মেন্স দেখিয়েছে৷ কিন্তু ওটা একটা শরীরই, কোনো যন্ত্র নয়৷ ঐ পর্যায়ের একজন অ্যাথলিট আর তাঁর কোচ যদি মনে করেন যে, আরো বিশ্রাম প্রয়োজন, তাহলে আমরা নিশ্চয় তা নিয়ে প্রশ্ন তুলব না এবং এই সিদ্ধান্তে পুরোপুরি মদত দেব৷'' কাজেই বিশ্বের দ্রুততম মানুষটি সেপ্টেম্বরে স্পন্সরিং-এর কাজকর্ম নিয়ে দিন কাটানোর পর অক্টোবর থেকে আবার ট্রেনিং শুরু করবেন, বলে জানিয়েছেন তাঁর কোচ৷

২০১৫ সালে আসছে বিশ্ব অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়নশিপ – বেইজিংয়ে, যেখানকার ‘পাখির বাসা' স্টেডিয়ামে তিনি ২০০৮ সালে তিনবার সোনা জিতেছিলেন এবং একাধিক বিশ্বরেকর্ড স্থাপন করেছেন৷ ২০১৫ গেলে আসছে ২০১৬, এবং রিও অলিম্পিক্সে আরো তিনটি সোনা সংগ্রহ করার আশা৷ অবশেষে ২০১৭ সালে লন্ডনের বিশ্ব অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়নশিপে ক্যারিয়ার শেষ করার পরিকল্পনা রাখেন ইউসেইন বোল্ট: তখন তাঁর বয়স হবে ৩১৷ অ্যাথলেটিক্সের ইতিহাসে নিজের নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখার মতো সোনা তো এখনই তাঁর ভাঁড়ারে রয়েছে৷

এসি/ডিজি (এপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়