1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি-ইউরোপ

ইউরোপীয় ইউনিয়নে ফিরে আসতে চায় ব্রিটেন

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল জানিয়েছেন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে তাঁকে বলেছেন, ব্রিটেন চায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘পূর্ণ সদস্য' হতে৷ শুক্রবার সকালে সম্মেলন শুরুর আগে এ কথা জানান ম্যার্কেল৷

Brüssel EU Gipfel Gruppe May Merkel (picture-alliance/dpa/T. Roge)

সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন

ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেন বের হয়ে গেলেও দেশটির সাথে কাজের সম্পর্ক ভালো আছে বলে উল্লেখ করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর৷ ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সম্মেলনের প্রথম দিন ছিল বৃহস্পতিবার৷ সেইদিনের কথা উল্লেখ করে ম্যার্কেল বলেন, আমাদের জন্য এটা আসলেই একটা ভালো বার্তা৷ বৃহস্পতিবারের সম্মেলনে ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে প্রথমবারের মতো অংশ নিলেন৷

এবারের সম্মেলনের মূল উদ্দেশ্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে অভিবাসীর প্রবেশের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া৷ গত বছর ১০ লাখ অভিবাসন প্রত্যাশী ইউরোপে প্রবেশ করেছে৷ তাই সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ আরোপের বিষয়টিতে সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন তারা৷ আর কবে নাগাদ শেঙেন দেশগুলোর মধ্যে ক্ষণস্থায়ী চেকপোস্টগুলো সরিয়ে নেয়া হবে. সে বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এই সম্মেলনে৷

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলঁদ বলেছেন, ব্রিটেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোর কোনো প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ না রাখলে সেটার ভয়াবহ পরিনাম তাদের ভোগ করতে হবে৷ তাই ব্রিটেনকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, তাদের সাথে আলোচনাটা মোটেও সহজ হবে না৷ সাংবাদিকরা গতকালের আলোচনা শেষে ইইউ এর শীর্ষ নেতাদের ব্রিটেনের ইইউ ছাড়ার প্রসঙ্গে প্রশ্ন করেন৷ নেতারা জানান ‘‘এটা ব্রিটেনের জনগণের হাতেই আছে৷ তবে তারা যদি ফিরে আসে তবে আমরা খুশিই হব৷''

রাশিয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত

সিরিয়ায় অভিযান চালানোর জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপের পরিকল্পনা করছিল ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যা শুক্রবার সকালে তারা বাতিল করে দেয়৷ ইটালির শক্ত বিরোধের কারণে এ পরিকল্পনা বাতিল করতে বাধ্য হয় তারা৷ ম্যার্কেল এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘আলেপ্পোতে যদি এরপরও বিমান হামলা চলতে থাকে, তাহলে আমাদের বুঝতে হবে, আমাদের কিছু করার ছিল, যা করিনি৷'' ম্যার্কেল বলেন, সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় এখনো ফুরিয়ে যায়নি৷ বুধবার বার্লিনে জার্মান চ্যান্সেলর ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন৷ কিন্তু কোনো ইস্যুতেই তাদের মধ্যে কোনো সমঝোতা হয়নি৷

ব্রাসেলসে ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্কও বলেছেন, রাশিয়া ইউরোপিয়ান আকাশসীমা লঙ্ঘন করছে৷

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়