1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

ইউটিউবে রুশ ভালুকের বিশ্বজয়

ছোট ভিডিও, সংলাপও কম – তা সত্ত্বেও গোটা বিশ্বে বিশাল সাফল্যের মুখ দেখছে রাশিয়ার এক সিরিজ৷ ছোটদের জন্য তৈরি হলেও বড়রাও অনাবিল আনন্দ নিয়ে সেগুলি দেখে৷ তবে এর পেছনে রয়েছে অনেক পরিশ্রম ও সৃজনশীলতার ছাপ৷

ভিডিও দেখুন 04:33

বিশ্বজয় করলো রুশ ভাল্লুকের গল্প

ছোট হলেও মাশা তার সাফল্যের চাবিকাঠি খুঁজে নিয়েছে৷ রুশ কমিক সিরিজ ‘মাশা ও ভালুক'-এর এই একটি পর্বই ইউটিউবে ১৬০ কোটিরও বেশি ক্লিক পেয়েছে৷ মাশা ও তার বন্ধু সার্কাসের প্রাক্তন ভালুকের অ্যাডভেঞ্চার অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷

মস্কো শহরের উপকণ্ঠে এই জুটির কাহিনি সৃষ্টি হয়৷ নতুন পর্বের বিপুল চাহিদা রয়েছে৷ ‘আনিমাকর্ড' স্টুডিওতে শিল্পীরা নতুন কাহিনি সৃষ্টি করেন৷ সাত মিনিটের প্রতিটি পর্বের জন্য এক মাসেরও বেশি সময় লাগে৷ পরিচালক আন্দ্রেই বেলইয়াএভ এই সৃজনশীল টিমের একজন৷ তিনি বলেন, ‘‘শুরু থেকেই এক সৃজনশীল প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকার চেয়ে ভালো অনুভূতি কিছু হতে পারে না৷ সামান্য কয়েকটা বাক্য থেকে একটা আইডিয়া যখন চিত্রনাট্য ও চূড়ান্ত স্টোরিবোর্ড হয়ে ওঠে, সেটাই সেরা মুহূর্ত৷''

‘মাশা ও ভালুক' আটটি ভাষার ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যায়৷ সব মিলিয়ে ১,৬০০ কোটি বারেরও বেশি ক্লিক পেয়েছে পর্বগুলি৷ সবচেয়ে পরিচিত ভিডিওটি ইউটিউবের ১০টি সেরা সফল ভিডিওর তালিকায়ও স্থান পেয়েছে৷ একমাত্র মিউজিক ভিডিও এতকাল এমন সাফল্য পেতো৷ এই সাফল্যের পেছনে বুদ্ধিমান বিপণন কৌশল লুকিয়ে রয়েছে৷ কোম্পানির প্রধান দিমিত্রি লোভেইকো বলেন, ‘‘আমরা শুরু থেকেই অনেক একনিষ্ঠ দর্শক চেয়েছিলাম৷ শিশু এবং তাদের বাবা-মা৷ সে কারণে প্রথম তিন বছর আমরা ইন্টারনেট থেকে চুরি ও বেআইনি ডাউনলোডের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেইনি৷ আমরা এই সিরিজ জনপ্রিয় করতে চেয়েছিলাম৷''

এখন এই কোম্পানি বেআইনি ডাউনলোডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বটে, কিন্তু দেখা যাচ্ছে যে ডিভিডি বাজারে আসার আগেই তার পর্বগুলি অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে৷ ‘মাশা আর ভালুক' গোটা বিশ্বে সাফল্যের মুখ দেখছে৷ ১০০টি দেশে ২৫টি ভাষায় এই সিরিজ ইন্টারনেট অথবা টেলিভিশনে দেখতে পাওয়া যায়৷ দিমিত্রি লোভেইকো বলেন, ‘‘এই সিরিজে সংলাপ খুব কম – এর ফলে এটা আন্তর্জাতিক প্রকল্প হয়ে উঠেছে৷ তাতে আমাদের সুবিধা হয়৷ সবাই ইশারা-ইঙ্গিত ও মুখের অভিব্যক্তি থেকে হাস্যরস বুঝতে পারে৷''

এই সিরিজ এর মধ্যে এক জনপ্রিয় ব্র্যান্ড হয়ে উঠেছে৷ নরম পুতুল থেকে শুরু করে বাদ্যযন্ত্রে তার চিহ্ন পাওয়া যায়৷ ‘মাশা ও ভালুক' সিরিজ ভিত্তি করে তৈরি সামগ্রী বিক্রি করেই প্রায় ৭০ শতাংশ আয় হয়৷ মস্কোয় রাশিয়ার সবচেয়ে বড় খেলনার দোকানে সেটা টের পাওয়া যায়৷ অনলাইন হোক অথবা টেলিভিশন – গোটা পরিবার শিশুসুলভ আনন্দ নিয়ে এই সিরিজ দেখে৷ গোটা বিশ্বে বাচ্চাদের ঘরে আরও রং আনে এই সিরিজ৷

এমিলি শেরউইন/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও