1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইউক্রেনে লাশের মিছিল, ইয়ানুকোভিচের সমঝোতার আশ্বাস

ইউক্রেনে সংকট এখনো কাটেনি৷ বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এ পর্যন্ত ৭৫ জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে৷ প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচ জানিয়েছেন, বিরোধীদের সঙ্গে সমঝোতা হতে চলেছে৷ তবে সমঝোতা নিয়ে রয়েছে সংশয়৷

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচ এক বিবৃতির মাধ্যমে জানান, শুক্রবার দুপুরেই সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে৷ তার আগে বৃহস্পতিবার সারারাত ধরে কিয়েভে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হয়৷ বৈঠকের শেষ দিকে পোল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাদোস্লাভ শিকরস্কি টুইটবার্তার মাধ্যমে জানান, প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচের সঙ্গে তাঁদের আলোচনা মুলতবি রাখা হয়েছে৷ তার পরপরই আসে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের বার্তা বিভাগের বিবৃতি৷ সেখানে বলা হয়, আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে এবং শুক্রবার দুপুরে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে৷

তবে সমঝোতা নিয়ে ফ্রান্স এবং পোল্যান্ড সংশয় প্রকাশ করেছে৷ আলোচনা শেষে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী লোরঁ ফাবিয়ুস জানান, ইউক্রেনের বিরোধী দলগুলো চায় সংকট নিরসনের উপায় নিয়ে তাদের সঙ্গেও আলোচনা করা হোক৷ ইউরোপ ওয়ান রেডিয়োকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‘বিরোধীরা (ইইউ) সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করতে চায়৷ তাদের এ চাওয়ার কারণটা বোধগম্য৷ এই পরিস্থিতিতে সব কিছু ঠিকঠাক না হওয়া পর্যন্ত সতর্ক দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন৷''

সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা এখনো কিয়েভের ‘ময়দান' বা ইন্ডিপেন্ডেন্স স্কোয়ারে অবস্থান করছে৷ তাদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এ পর্যন্ত ৭৫ জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে৷

এদিকে প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচের জনপ্রিয়তা খুব দ্রুতই কমছে৷ সংকট নিরসন বিলম্বিত হলে সারা দেশে গৃহযুদ্ধ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ প্রশাসন এবং সামরিক বাহিনীতেও সমর্থন হারাচ্ছেন ইয়ানুকোভিচ৷ সামরিক বাহিনীর উপ-প্রধান ইতিমধ্যে পদত্যাগ করেছেন৷ এছাড়া সংসদে বিরোধী দলের সদস্যরা বিক্ষোভবিরোধী আইনের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন৷ একই অধিবেশনে সামরিক বাহিনীকে সেনাছাউনিতে ফিরে যাওয়ার নির্দেশও দিয়েছে সংসদ৷

এসিবি/এসবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন