1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ইইউ সদস্যদের বাজেট নিয়ন্ত্রণে নতুন প্রস্তাব

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর জাতীয় বাজেট পরীক্ষার এক প্রস্তাব দিয়েছে ইইউ৷ ইতিমধ্যে এটি নিয়ে শুরু হয়েছে বির্তক৷ জার্মানির চ্যান্সেলর এটির পক্ষে অবস্থান নিলেও বিরোধিতায় পররাষ্ট্র মন্ত্রী৷

default

ইউরো বাঁচাতে যত চেষ্টা

ইউরোপীয় কমিশনের প্রস্তাব হচ্ছে সদস্য দেশগুলোকে তাদের জাতীয় বাজেট প্রথমে ব্রাসেলসে পাঠাতে হবে, বিশেষ পর্যালোচনার জন্য৷ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সেই বাজেট তোলা যাবে নিজ নিজ দেশের জাতীয় সংসদে৷ মূলত গ্রিসের মতো আর কোন উদাহরণ যাতে সৃষ্টি না হয়, কিংবা কোন দেশ যাতে বাড়তি খরচ করতে না পারে সেজন্য এই প্রস্তাব৷ বিষয়টি নিয়ে ইইউ-র ইউরোপীয় অর্থনীতি এবং মুদ্রা বিষয়ক কমিশনার অলি রেন বলেন, শক্তিশালী অর্থনৈতিক নেতৃত্বের একটি বুনিয়াদি উপাদান হলো, আর্থিক নীতির আগে থেকেই সমন্বয়৷ তার অর্থ, সঠিক সময়ে নিশ্চিৎ করা যে, জাতীয় বাজেটগুলো ইউরোপীয় নিয়মাবলী অনুযায়ী করা হয়েছে৷

এদিকে, নতুন এই প্রস্তাব নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক বিতর্ক৷ সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী ফ্রেডরিক রাইনফেল্ট এটিকে ‘আশ্চর্যজনক' আখ্যা দিয়েছেন৷ জার্মানির অর্থমন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে ইইউ'এর এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বলেছেন, জাতীয় বাজেট আইন একটি দেশের সার্বভৌম অধিকারে থাকতে হবে৷

তিনি বলেন, বাজেট আইন জাতীয় সংসদের বিষয়৷ ইউরোপীয় ইউনিয়ন বাজেট নির্ধারণ করে দিতে পারে না৷ এটি জার্মান সংসদ মানে বুন্ডেসটাগ এর কাজ৷

অবশ্য, জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল এক্ষেত্রে খানিকটা উদারতা দেখিয়েছেন৷ তিনি কান্ডজ্ঞানহীন ব্যয় কামাতে ইইউ-র এই প্রস্তাবের প্রশংসা করে বলেছেন, এতে জাতীয় সংসদগুলোর ক্ষমতাহ্রাসের কোন সম্ভাবনা নেই৷

ম্যার্কেল বলেন, আমি মনে করি সদস্য দেশগুলোর বাজেট পরিকল্পনায় গোপন কিছু নেই৷ তাই যে কোন দেশের বাজেট বিতর্কে ইউরোপীয় কমিশন তাদের নিজস্ব মতামত দিতেই পারে৷

এর আগে ইউরো মুদ্রা নিয়ে ফাটকাবাজির প্রসঙ্গে ম্যার্কেল বলেন, আমরা দেখেছি যে, মুদ্রা হিসেবে ইউরোর বিরুদ্ধে ব্যাপক ফাটকাবাজি চলেছে এবং সেই কারণে আমরা আবার দেখেছি যে, আমরা সবাই নিজেদের ইউরোর স্থায়িত্বের জন্য দায়ী বলে বোধ করি৷

এদিকে, ইউরোর এই সঙ্কটের মুহূর্তেও ইউরো জোনে প্রবেশের জন্য প্রস্তুত বাল্টিক সাগরের তীরবর্তী দেশ এস্টোনিয়া৷ আগামী বছরের এক জানুয়ারি থেকে দেশটি তাদের নিজস্ব মুদ্রা ক্রোন এর বদলে ইউরো চালুর পরিকল্পনা করেছে৷ ইইউ কমিশনও বুধবার এস্টোনিয়াকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, ইউরো জোনে প্রবেশের জন্য যথেস্ট শক্তিশালী অর্থনীতি দেশটির রয়েছে৷

প্রতিবেদক: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়