1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ইইউ নির্বাচনে ৬২ শতাংশের কোনো আগ্রহ নেই

আগামী ২২ থেকে ২৫ মে ইউরোপীয় সংসদের নির্বাচন৷ ভোট হবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৮টি দেশে৷ কিন্তু সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী দশজন ইউরোপীয়ের মধ্যে ছ’জনেরই আসন্ন নির্বাচন সম্পর্কে ‘‘ত’তোটা আগ্রহ নেই’’৷

default

ব্রিটেনে ইইউ নির্বাচনের প্রচারণা

পাঁচ বছরের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের সংসদ নির্বাচিত হবে৷ ইইউ'র নাগরিকরা যাতে ভোট দিতে যান, সেজন্য প্রচারণা বিশেষজ্ঞরা বিপুল অর্থ ও পরিশ্রম ব্যয় করছেন৷ কিন্তু তা'তে বিশেষ লাভ হচ্ছে বলে মনে হচ্ছে না৷ ইইউ'র ১২টি দেশের প্রায় নয় হাজার সম্ভাব্য ভোটারের জরিপে সেটাই প্রকাশ পেয়েছে৷

উত্তরদাতাদের ৬২ শতাংশ ইইউ নির্বাচনে ‘‘একেবারেই আগ্রহী নন'', কিংবা ‘‘ত'তোটা আগ্রহী নন''৷ মাত্র ৩৫ শতাংশ জানিয়েছেন যে, তাঁরা ভোট দিতে যাবেন৷ এক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার, ২০০৮ সালের শেষ নির্বাচনে বস্তুত ভোট দিতে গিয়েছিলেন ৪৩ শতাংশ ভোটার৷ কাজেই এবারকার ‘প্রোজেকশন' তারও নীচে৷

ইইউ নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি আগ্রহী দৃশ্যত বেলজিয়ামের মানুষদের: ৫৩ শতাংশ৷ কিন্তু সেক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার যে, বেলজিয়ামে ভোট দেওয়াটা বাধ্যতামূলক৷

Jean-Claude Juncker und Martin Schulz

দুই শীর্ষ প্রার্থী জঁ ক্লোদ ইয়ুংকার ও মার্টিন শুলৎস

ইইউ নির্বাচনে উৎসাহের পরিমাপে বেলজিয়ামের পরে আসছে ফ্রান্স (৪৪ শতাংশ), তারপর নেদারল্যান্ডস (৪১ শতাংশ)৷ আগ্রহ সবচেয়ে কম ব্রিটেন (২৭ শতাংশ) এবং পোল্যান্ডে (২০ শতাংশ)৷

জনপ্রিয়তার মাপকাঠিতে নেতারা

জরিপে দেখা গেছে, জনপ্রিয়তার মাপকাঠিতে অন্য সবার থেকে এগিয়ে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল, যার সম্পর্কে ৫১ শতাংশ ‘রেসপন্ডেন্ট' বলেছেন, তাদের ধারণা ‘‘খুবই ইতিবাচক'' বা ‘‘বেশির ভাগ ইতিবাচক''৷ দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন: তাঁর পক্ষে ৩৫ শতাংশ৷ জনপ্রিয়তায় সবার নীচে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রঁসোয়া ওলঁদ: মাত্র ২০ শতাংশের তাঁকে পছন্দ; সে তুলনায় ওলঁদ'কে অপছন্দ করেন ৩২ শতাংশ৷

দলীয় প্রার্থীরা ঠিক ‘দৃষ্টিগোচর' নন

ইউরোপের তিনটি মুখ্য রাজনৈতিক গোষ্ঠী: মধ্য-বাম সমাজতন্ত্রীরা, মধ্য-ডান ইপিপি এবং উদারপন্থিরা, এই তিনটি গোষ্ঠীই ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট পদে তাদের প্রার্থী মনোনয়ন করেছে বটে - কিন্তু জরিপে দেখা যাচ্ছে নির্বাচনের দু'সপ্তাহ আগেও ৬০ শতাংশ মানুষ জানেন না, এই প্রার্থীরা কারা৷

ইপসস-মোরি সংস্থা গত এপ্রিল মাসে এই জরিপটি করে৷ জরিপে বেলজিয়াম, ব্রিটেন, ক্রোয়েশিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি, হাঙ্গেরি, আয়ারল্যান্ড, ইটালি, নেদারল্যান্ডস, পোল্যান্ড, স্পেন ও সুইডেনের মোট ৮,৮৩৩ জন মানুষকে প্রশ্ন করা হয়৷

এসি/জেডএইচ (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়