1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

আয়ারল্যান্ডে কাজ নেই, তাই দেশ ছাড়ছে অনেকে

আয়ারল্যান্ড – ইউরোপের এই দেশ থেকে লোকজন চাকরির আশায় পাড়ি জমাচ্ছেন বিভিন্ন দেশে৷ এমনকি এশিয়াতেও! কেন?

default

ফাইল ফটো

আইরিশ মা কেট মেরেডিথ৷ তাঁর তিন ছেলে৷ সেদিন বিমানবন্দরে চোখের জলে বিদায় জানালেন এক ছেলে ডারাগকে৷ কারণ সে শিক্ষকের চাকরি নিয়ে চলে যাচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়৷ মেরেডিথের আরেক ছেলে কাজ করে অস্ট্রেলিয়ায়৷ আর ছোট ছেলের যাওয়ার কথা ক্যানাডায়৷ মানে এরপর মেরেডিথ একা হয়ে পড়বেন৷

তাই কান্না ভেজা চোখে তিনি বললেন, দেশে চাকরির কোনো সন্ধান নেই বলেই তার সব সন্তানকে দেশ ছাড়তে হচ্ছে৷

এধরনের গল্প শুনলে সাধারণত বাংলাদেশি কোনো মায়ের কথা মনে পড়ে যায়৷ কিন্তু ইউরোপের কোনো দেশের মায়ের এমন অবস্থা! বিষয়টা ভাবনার বৈকি!

এদিকে জার্মানিতে বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ খুঁজতে এসেছেন প্রেন্ডভিল৷ অথচ পেশায় তিনি একজন ইলেকট্রিশিয়ান৷ তার বাবা ও দাদাও এই কাজ করতেন৷ এই পেশায় আসা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘‘বাবাকে দেখে মনে হয়েছিল এটা করে অনেক অর্থ উপার্জন করা যাবে৷ কিন্তু আয়ারল্যান্ডের পরিস্থিতি এখন এমন, যে সেটা আর সম্ভব হচ্ছে না৷''

একটি সংস্থার হিসেবে, প্রতি সপ্তাহে প্রায় এক হাজার আইরিশ ভাগ্যের অন্বেষণে দেশ ছাড়ছে৷ এছাড়া অস্ট্রেলিয়ায় লোক পাঠিয়ে থাকে এমন একজন বলছেন, তারা গত জানুয়ারি মাস থেকে বেশ ব্যস্ত৷

কিন্তু কেন এমন হলো? উত্তর – অর্থনৈতিক মন্দা৷ যে কারণে দেশে বেকারের সংখ্যা বেড়ে গেছে৷ আর যারা চাকরি করছেন, তারাও কম বেতন পাচ্ছেন৷ কারণ বিদেশিদের কাছ থেকে নেয়া বিলিয়ন বিলিয়ন ইউরো ঋণ শোধ করতে হচ্ছে৷

এছাড়া নির্মাণ শিল্পে ধস নামার কারণেও আয়ারল্যান্ডের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা৷ কারণ এই শিল্পই আয়ারল্যান্ডকে একসময় ইউরোপের অন্যতম ধনী দেশে পরিণত করেছিল৷ সময়টা ছিল ১৯৯৫ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত৷ তখন আয়রাল্যান্ডকে বলা হতো ‘কেল্টিক টাইগার'৷ সেসময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অনেক লোক আয়ারল্যান্ডে গিয়েছিল অভিবাসী হতে৷ শুক্রবারের নির্বাচনে যে দলেরই জয় হোক না কেন, পারবে কি তারা দেশের হারিয়ে যাওয়া গৌরব ফিরিয়ে আনতে?

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন