1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ব্লগওয়াচ

‘আয়নাবাজি' দেখতে টিকেটের জন্য হাহাকার

টিকেট কাটতে অনেকে অনেক আগেই বুকিং দিয়ে রাখছেন৷ তারপরও মিলছে না টিকেট৷ হাহাকার লেগেই আছে৷ বহু বছর পর বাংলাদেশের চলচ্চিত্র অঙ্গনে এমন দৃশ্যের দেখা মিলছে ‘আয়নাবাজির' বদৌলতে৷

মুক্তির দু'দিন পরেই চলচ্চিত্রটির পরিচালক, অমিতাভ রেজার একটি মন্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল৷

‘প্রতিদিনের সংবাদ'কে তিনি বলেছিলেন, ‘‘আমি এদেশের বাঙালি মুসলমানের ফিল্ম মেকার৷ নিজেকে সেভাবেই ভাবতে চাই৷ এ জাতির, মাটির, বাঙালি মুসলমানের যে সত্তা, সেখান থেকে আমি এ জাতির একজন ফিল্মমেকার হিসেবেই নিজের ভাবনা প্রকাশ করি৷''

তবে সেই বক্তব্যের পক্ষে-বিপক্ষে পরবর্তীতে তেমন কোনো আলোচনা না হওয়ায় এবং ছবিটিও দর্শকানুকুল্য পাওয়ায় বিতর্কটি যেন আড়ালে চলে যায়৷

সেপ্টেম্বরের শেষে সারাদেশের ২০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় র্নিমাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরীর প্রথম সিনেমা ‘আয়নাবাজি'৷ মুক্তির পর থেকেই বক্সঅফিসে নিজের রাজত্ব প্রতিষ্ঠা করেছে সিনেমাটি৷

মুক্তির পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিদিনই ছবিটি নিয়ে হচ্ছে আলোচনা৷ টুইটারে ফুয়াদ চৌধুরী লিখেছেন, ‘‘আয়নাবাজি, ইউ বিউটি''৷

মাহাদি হাসান লিখেছেন,

ফেসবুক পাতায় ইফতেখার ইমাজ লিখেছেন,‘‘আয়নাবাজি শেখাবে বাংলা মুভিকে ভালবাসতে৷

পাঁচ, ছয়জন মুরুব্বির গ্রুপ সাথে একটা ছেলেকে নিয়ে মুভি দেখে হল থেকে বের হচ্ছে, সবাই ওই ছেলেটাকে বলছে ধন্যবাদ তোমাকে ,এই মুভি দেখানোর জন্য৷ মুরুব্বিরা সবাই কলেজের বন্ধু৷ ২৫ বছর পর ওনাদের একসাথে মুভি দেখাতে নিয়ে এসেছে একজনের নাতি৷ আহ! এক মিনিটের জন্য অমিতাভ রেজার জায়গাতে নিজেকে চিন্তা করতে লোভ হচ্ছিল৷ আর কি চাই একজন নির্মাতার৷ আমি অনেক বাংলা মুভি হলে দেখেছি. কিন্তু কোনো দিন এত মুরুব্বি আর মহিলা দর্শক দেখি নাই হলে৷ জয়তু বাংলা ছবি৷ জয়তু আয়নাবাজি৷''

শাহরিয়ার জয় ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘সেই অভিনেতা'র অভিনয়ে অভিভূত হয়ে আয়নাবাজি থেকে আবার ফিরে আসতে হলো সেই আগের মনপুরায়৷''

ফেসবুকে জাহিদ আকবর লিখেছেন, ‘‘

আয়নাবাজি দুইবার দেখেছি৷ ছবি দেখা শেষে একটা ঘোরের মধ্যে চলে গেছি৷ ঘোরটা মুগ্ধতার ! গল্পের বুনন চমৎকার৷ অভিনয়ে চঞ্চল চৌধুরী নিজেই নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠেছেন৷ পরিচালক অমিতাভ রেজা প্রথম সিনেমাতেই ভেলকি দেখালেন৷ গল্পের জন্য গাউসুল আলম শাওনকে বড় একটা ধন্যবাদ৷ নাবিলা মন্দ না৷ পার্থ বড়ুয়া দারুণ৷''

প্রথম আলো টুইটারে একটি প্রতিবেদন শেয়ার করেছে৷

চলচ্চিত্রটির গানগুলোও জনপ্রিয়তা পেয়েছে৷ তাহমিদ ইমাম রাদ লিখেছেন, ‘‘এরকম কোনো কম্পোজিশন পাওয়া, তাও আবার বাংলা সিনেমাতে ব্যাপারটা সত্যিই ভাল লাগার৷ ভাবতেই অবাক লাগে যে এখন আমরা বাংলা মুভি দেখে এসেও গানগুলো ইউটিউবে অথবা ডাউনলোড করে শুনছি৷''

জাকারিয়া খান লিখেছেন, ‘‘

‘‘আয়নাবাজি না দেখলে কিন্তু মিস করবেন ভাই৷ এমন বাংলা সিনেমা এই সময়ে দেখা যায়নি৷ যেসব বোদ্ধারা আয়নাবাজি নিয়ে আকারেইংগিতে কথা বলছেন তারদেরকে বলতে চাই, উলটাপাল্টা কথা বলে ফোকাসে আসার চেষ্টা থেকে বিরত থাকুন৷ এক কথায় এটি অসাধারণ একটি সিনেমা৷''

একেএন রাসেল লিখেছেন, ‘‘প্রিয় বন্ধুদের সাথে দ্বিতীয়বার দেখলাম কিন্তু ভালোলাগার কমতি ছিল না৷''

শওকত হোসেন লিখেছেন, ‘‘

‘‘দীর্ঘ ৮ বছর পর আবার হলে গিয়ে ছবি দেখলাম৷ শেষ ছবিটা দেখেছিলাম মনপুরা আর আজ দেখলাম আয়নাবাজি৷ কাকতালীয়ভাবে দু'টো ছবিই চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত৷ দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে অবশেষে টিকিট পেয়েছি৷ একেবারে হাউসফুল৷ সুস্থ ধারার ছবি হলে এখনো যে দর্শক হুমড়ি খেয়ে পড়ে তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আয়নাবাজি ছবিটা৷ গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, আপনার পয়সা উসুল হয়ে যাবে৷ ছবির সেরা একটি ডায়লগ হচ্ছে এই পৃথিবীটা একটা রঙ্গমঞ্চ আর আমি হলাম অভিনেতা৷''

শাহরিয়ার অনির্বান চঞ্চল চৌধুরীর অভিনয় নিয়ে লিখেছেন, ‘‘আয়নাবাজি এক কথায় অসাধারণ ও অবিশ্বাস্য অভিনয়,

চঞ্চল চৌধুরী অভিনয়ের বরপুত্র মানতেই হবে৷''

রাহাতুল ইসলাম রুবেল ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘সবার কাছে গল্প শুনে আর ট্রেইলার দেখে যতটা ভালো ভেবেছিলাম তার চেয়েও বেশি ভালো লেগেছে আজ মুভিটা দেখে৷ অভিনয়ের মঞ্চ,অপরাধের স্তর আর রাজনীতি, মুভিটা সবার দেখা উচিৎ, না দেখলেই মিস৷''

আর এক চঞ্চল ভক্ত লিখেছেন, ‘‘চঞ্চলদা, আপনি একটা রাক্ষস, মিয়া৷ অতীতের সকল ভালো অভিনয়ের রেকর্ড ভেঙ্গে দিয়েছেন৷''

সাজ্জাদ হোসেইন লিখেছেন, ‘‘এ যেন গর্ত থেকে বের হয়ে বাঘের মতো গর্জন দিলো অমিতাভ রেজা৷ সুপার-ডুপার হিট৷ এতদিন এমন ছবিই খুঁজেছিল বাংলাদেশ৷ অভিনয় কাকে বলে আয়নাবাঁজি না দেখলে বোঝা মুশকিল৷ এমন ছবি দর্শকদের উপহার দিলে বাংলা মুভির অবনতি হবেনা৷''

টুইটারে ছবিটি নিয়ে মতামত শেয়ার করেছেন রেজওয়ান ও অপরাজিতা৷

সংকলন: অমৃতা পারভেজ

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়