1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আহত মার্কিন সৈন্যের পুরুষাঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হবে

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এটাই হতে যাচ্ছে প্রথম ঘটনা৷ জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকরা এই অস্ত্রোপচার করবেন৷ চলতি বছরের শুরুতে বিশ্বে প্রথমবারের মতো সফলভাবে একজনের পুরুষাঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়৷

আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন এক সৈন্যের পুরুষাঙ্গ বোমার আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ চিকিৎসকরা সেটাই প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করবেন৷ প্রায় ১২ ঘণ্টা ধরে এই অস্ত্রোপচার চলতে পারে৷ এই সময় মারা যাওয়া কোনো এক পুরুষের লিঙ্গ ঐ সৈন্যের দেহে স্থাপন করা হবে৷ চিকিৎসকরা আশা করছেন, এর মাধ্যমে আহত ঐ সৈন্য আবারও ঠিকভাবে মূত্রত্যাগ করতে পারবেন৷ পরবর্তীতে যৌনমিলনেও সক্ষম হতে পারেন তিনি৷ কিন্তু বাবা হতে পারবেন না৷ কারণ অস্ত্রোপচারে শুধু লিঙ্গটিই ঠিক করা হবে, অণ্ডকোষ নয় – যেখান শুক্রাণু উৎপাদিত হয়৷ আগামী এক বছর কিংবা কয়েক মাসের মধ্যে এই অস্ত্রোপচার হতে পারে৷

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রথম সংবাদটি প্রকাশিত হয়৷ সেখানে জানানো হয়, ২০০১ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে ইরাক অথবা আফগানিস্তানে নিয়োজিত অন্তত ১,৩৬৭ জন সৈন্যের পুরুষাঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷

এদিকে, এএফপি জানিয়েছে চলতি বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকায় বিশ্বের প্রথম সফল পুরুষাঙ্গ প্রতিস্থাপনের ঘটনা ঘটে৷ পরবর্তীতে ঐ পুরুষের বাবা হতে যাওয়ার খবরও প্রকাশিত হয়েছে৷ কারণ দক্ষিণ আফ্রিকার এই নাগরিকের অণ্ডকোষটি অক্ষত ছিল, মার্কিন সৈন্যের যেটা ছিল না৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়