1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণে সক্ষম হবো আমরা'

শুরু হতে যাচ্ছে রানা প্লাজা ধসের ঘটনায় দায়ের করা মামলার বিচার৷ রাষ্ট্রপক্ষের ‘পাবলিক প্রসিকিউটর' আনোয়ারুল কবির জানান, পলাতক ২৪ জন আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রতিবেদন ২৭ জানুয়ারির মধ্যে দেয়ার নির্দেশ আদালতের৷

অডিও শুনুন 02:06

হত্যা মামলায় অপরাধ প্রমাণের আলামত এবং সাক্ষ্য প্রমাণ আমাদের হাতে আছে, আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণে সক্ষম হবো: পাবলিক প্রসিকিউটর আনোয়ারুল কবির

আনোয়ারুল কবির জানান, ‘‘সোমবার আদালত মোট ৪১ জন আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ করে পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে৷ এখন পুলিশ পলাতক ২৪ জন আসামিকে ২৭ জানুয়ারির মধ্যে আটক অথবা পলাতক বলে প্রতিবেদন দেবে৷ আর সেই প্রতিবেদন দাখিলের পরই শুরু হবে বিচার৷''

তিনি জানান, ‘‘যারা আটক হবে না, তাদের বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেয়া হবে এবং তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচার শুরু হবে৷''

তাঁর কথায়, ‘‘এরপর বিচারিক আদালত মামলায় অভিযোগ গঠন এবং বিচারকাজ শুরু করবে আদালত৷ অভিযোগ গঠনই বিচার শুরুর প্রথম ধাপ৷ আর এ কাজ ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যেই সম্ভব হবে৷''

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল রানা প্লাজা ধসে ১ হাজার ১৩৪ জন পোশাক শ্রমিক প্রাণ হারান৷ ভবনের ধ্বংসস্তূপের নীচ থেকে দুই হাজার ৪৩৮ জন পোশাক-কর্মীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়৷ এ ঘটনায় ঐ বছরের ২৫ এপ্রিল সাভার থানায় হত্যা এবং ইমারত নির্মাণ আইনে পৃথক দু'টি মামলা করা হয়৷

চলতি বছরের ১লা জুন হত্যা ও ইমারত নির্মাণ আইনে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানাসহ ৪১ জনের বিরুদ্ধে পৃথক দু'টি অভিযোগ-পত্র দেয় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)৷ আসামিদের মধ্যে ২৪ জন পলাতক আছেন, ১৬ জন রয়েছেন জামিনে৷ এছাড়া কারাগারে আটকদের মধ্যে ভবনের মালিক সোহেল রানা রয়েছেন৷

পাবলিক প্রসিকিউটর আনোয়ারুল কবির বলেন, ‘‘হত্যা মামলায় অপরাধ প্রমাণের আলামত এবং সাক্ষ্য প্রমাণ আমাদের হাতে আছে৷ আমরা বিচারে আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণে সক্ষম হবো৷''

আপনি কি চান সোহেল রানার মতো মানুষরা শাস্তি পান? জানান নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়