1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আসাঞ্জের সহায়তায় ইকুয়েডরের পথে স্নোডেন

হংকং থেকে রাশিয়া, সেখান থেকে কিউবা৷ তারপর ইকুয়েডর৷ এই হলো আলোচিত এডওয়ার্ড স্নোডেনের রুট৷ এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র চাইছে স্নোডেনকে আটক করতে৷

সিআইএ-র আলোচিত সাবেক এজেন্ট স্নোডেন মস্কো পৌঁছানোর পর হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে স্নোডেনকে আটক করে ওয়াশিংটনে পাঠাতে মস্কোকে অনুরোধ জানানো হয়েছিল৷ কিন্তু মস্কো বলে দিয়েছে স্নোডেনকে আটকের কোনো কারণ নেই৷ কেননা একজন ‘সাধারণ ট্রানজিট যাত্রী' হিসেবে তিনি কিউবা যাওয়ার পথে মস্কো বিমানবন্দরে এসেছেন৷

এর আগে হংকং এ থাকার সময় যুক্তরাষ্ট্র সে দেশের সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছিল৷ কিন্তু সেটা বিবেচিত হওয়ার আগেই স্নোডেন হংকং ছেড়ে যান৷ তবে ওয়াশিংটনের অভিযোগ, চীন স্নোডেনকে হংকং ছেড়ে যেতে সহায়তা করেছে৷ কিন্তু চীন বলছে, এ সব ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা হংকং প্রশাসকের রয়েছে৷

Snowden Flugzeug Moskau

এই বিমানে করেই স্নোডেন মস্কো পৌঁছেছেন বলে ধারণা করা হয়

আসল গন্তব্য ইকুয়েডর

শুক্রবার ওয়াশিংটন স্নোডেনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর স্নোডেন ইকুয়েডরে আশ্রয়প্রার্থী হওয়ার আবেদন করেছেন৷ উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জের কর্মীরাই স্নোডেনকে এই পরামর্শ দিয়েছেন৷ এবং আসাঞ্জের কর্মীরাই স্নোডেনকে ইকুয়েডর পৌঁছাতে সহযোগিতা করছে৷

ওয়াশিংটন স্নোডেনের পাসপোর্ট বাতিল করে তাঁর বিমান যাত্রার উপায় বাতিল করলেও আসাঞ্জ স্নোডেনের জন্য ইকুয়েডর থেকে শরণার্থীদের যাত্রার জন্য বিশেষ কাগজপত্রের ব্যবস্থা করেছেন৷

উল্লেখ্য, আসাঞ্জ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে অবস্থান করছেন৷

স্নোডেনের আবেদনের প্রেক্ষিতে ইকুয়েডরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন তারা সেটা বিশ্লেষণ করে দেখছেন৷

সাধারণ জনগণের টেলিফোন কথোপকথন রেকর্ড করছে যুক্তরাষ্ট্র, নজর রাখছে ইন্টারনেট গতিবিধিতে – গণমাধ্যমে এসব তথ্য ফাঁস করে এডওয়ার্ড স্নোডেন এখন তুমুল আলোচনায়৷

জেডএইচ / এসবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন