1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আসাঞ্জের গ্রেপ্তারও থামাতে পারছেনা উইকিলিক্সকে

থামছেনা উইকিলিক্স৷ প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জকে গ্রেপ্তার, উইকিলিক্সের আর্থিক উৎসগুলো বন্ধ করে দেয়া – এসব কোনো কিছুই পারছেনা উইকিলিক্সকে আটকাতে৷

default

উইকিলিক্সের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান আসাঞ্জ

তাইতো এখনও ফাঁস হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জন্য বিব্রতকর গোপন সব কূটনৈতিক তথ্য৷

সর্বশেষ প্রকাশিত নথিপত্র

এবার যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন আর সৌদি আরবকে নিয়ে তথ্য বের হয়েছে৷ এতে দেখা যাচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী, বর্তমানে যিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী, সেই কেভিন রাড'কে ‘সবকিছু নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতি উৎসাহী ভ্রান্তি-প্রবণ এক মানুষ' হিসেবে আখ্যায়িত করেছে ওয়াশিংটন৷ অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত দৈনিক সিডনি মর্নিং হেরাল্ডে প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্যটি৷

আর ব্রিটেন সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, তারা লিবিয়ার হুমকিতে মাথা নত করেছে৷ হুমকিটা ছিল এরকম - স্কটল্যান্ডে গ্রেপ্তার

Australien / Rudd / Canberra

অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কেভিন রাড

থাকা লকারবি বিমান দুর্ঘটনার অভিযুক্ত ও ক্যান্সারে আক্রান্ত মেঘরাহি যদি স্কটল্যান্ডে মারা যায়, তাহলে লিবিয়াতে ব্রিটেনের সব বাণিজ্যিক কাজকর্ম বন্ধ করে দেয়া হবে৷ এরপর স্কটল্যান্ড যখন মেঘরাহিকে ছেড়ে দেয় তখন ব্রিটেন স্বস্তির নি:শ্বাস ফেলেছিল৷ লিবিয়াতে সেসময় নিযুক্ত থাকা মার্কিন রাষ্ট্রদূত এধরণের রিপোর্টই পাঠান কূটনৈতিক ব্যাগে৷ উইকিলিক্সের প্রকাশিত নথিপত্রে সেটাই দেখা যাচ্ছে৷ এই বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ব্রিটেনের সম্পর্ককে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে৷ কারণ লকারবির বিমান হামলায় শতাধিকেরও বেশি মার্কিন নাগরিক নিহত হয়েছিলেন৷ এদিকে উইকিলিক্সে সৌদি প্রিন্সেসের প্রাসাদের একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে৷ যেখানে দেখা যাচ্ছে সেখানে পার্টি হচ্ছে৷ আর পার্টিতে নিষিদ্ধ সব জিনিসের ছড়াছড়ি রয়েছে৷

যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা

মার্কিন গোপন নথিপত্র ফাঁসের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকেই দায়ী করেছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কেভিন রাড৷ তিনি বলছেন, এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েই প্রশ্ন তোলা যেতে পারে৷ রাড বলেন, জুলিয়ান আসাঞ্জ শুধু হাতে পড়া তথ্যগুলো প্রকাশ করেছেন৷ কিন্তু নথিপত্রগুলো ঠিকমত গোপন রাখতে না পারা যুক্তরাষ্ট্রেরই ব্যর্থতা৷

আর্থিক উৎস বন্ধ

উইকিলিক্স ওয়েবসাইটটি চলে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে পাওয়া অর্থের মাধ্যমে৷ এবং টাকাগুলো আসে ভিসা বা মাস্টারকার্ড-এর মাধ্যমে৷ ভিসা কর্তৃপক্ষ উইকিলিক্সের নামে আসা টাকা আর ছাড়ছে না গতকাল মঙ্গলবার থেকে৷ এর আগের দিন মাস্টারকার্ড এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল৷ সুইস ডাক বিভাগের ব্যাংকিং শাখাও আসাঞ্জ'এর খোলা একটা অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়