1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আল-কায়েদার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইরাকের পাশে যুক্তরাষ্ট্র-ইরান

ইরাকে আল-কায়েদার সঙ্গে সেনাবাহিনীর যু্দ্ধে ৩৪ জন নিহত হয়েছে৷ এ যুদ্ধে ইরাককে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান৷ তবে যুক্তরাষ্ট্র জানিায়েছে, তারা ইরাকে আর সেনাবাহিনী পাঠানোর কথা ভাবছে না৷

২০১১ সালে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়ার পর থেকেই ইরাকে জাতিগত সংঘাত বাড়ছে৷ সম্প্রতি এ সংঘাত ভয়াবহ রূপ নিয়েছে৷ ইরাকের সেনাবাহিনী আদিবাসীদের সঙ্গে নিয়ে আল-কায়েদার ঘাঁটিগুলো নির্মূলে নেমেছে৷ রোববার সেনাবাহিনী সুন্নি অধ্যুষিত আনবার প্রদেশে আল-কায়েদার ঘাঁটিতে বিমান হামলা চালায়৷ হামলায় কমপক্ষে ৩৪ জন নিহত হয়৷ অন্যদিকে শিয়া অধ্যুষিত রাজধানী বাগদাদে পাল্টা বোমা হামলায় মারা গেছে ২০ জন৷

ইরাকের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র৷ যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি আল-কায়েদা বিরোধী যুদ্ধে সহায়তার আশ্বাস দিলেও পাশাপাশি এ কথাও বলেছেন যে, এ যুদ্ধে তার দেশ সেনাবাহিনী পাঠানোর কথা ভাবছে না৷ প্রতিবেশি দেশ ইরানও ইরাকের প্রতি সহযোগীতার হাত বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছে৷ ইরানের সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল মোহাম্মদ হেফাজি বলেন, ইরাক থেকে আল-কায়েদা জঙ্গীদের নির্মূল করার লড়াইয়ে তাঁর দেশ সহযোগীতা করতে প্রস্তুত৷

এদিকে আনবারে বিমান যোগে বোমা হামলার দৃশ্যের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ইরাকের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়৷ ভিডিও চিত্রে আল-কায়েদার গুপ্ত ঘাঁটিতে একটি গাড়ির চার পাশে কিছু লোককে জড়ো হতে দেখা যায়৷ বোমা হামলা শুরু হওয়ার পরই লোকগুলো দৌড়ে অদৃশ্য হয়ে যায়৷

আল-কায়েদার বিরুদ্ধে চলমান এ লড়াইয়ে ইরাকি জনগণের সহায়তা চেয়েছে সরকার৷ সোমবার ইরাকের প্রধানমন্ত্রী নুরি আল-মালিকি ফাল্লুজার অধিবাসীদের সেখান থেকে আল-কায়েদা জঙ্গিদের বিতাড়িত করার অনুরোধ জানিয়েছেন৷ গত সপ্তাহে ফাল্লুজা দখল করে নেয় আল-কায়েদা জঙ্গিরা৷

এসিবি/ডিজি (এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়