1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সিরিয়া

আলেপ্পো থেকে বিদ্রোহীদের সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, তারা সিরিয়া সরকারের সঙ্গে মিলে পূর্ব আলেপ্পো থেকে বিদ্রোহীদের স্থানান্তরের প্রস্তুতি নিচ্ছে৷

মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতি বলছে, ‘‘রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের নির্দেশে রাশিয়ার যুদ্ধবিরতি পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সিরীয় কর্তৃপক্ষের সহায়তায় পূর্ব আলেপ্পোতে থাকা বিদ্রোহী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে৷''

২০ টি বাস ও অ্যাম্বুলেন্সে করে বিদ্রোহীদের ইডলিব শহরে নিয়ে যাওয়া হবে বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়েছে৷

এর আগে বুধবার এই স্থানান্তর প্রক্রিয়া শুরুর কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে তা ভেস্তে গিয়েছিল৷ এরপর বুধবার রাতে আবার নতুন চুক্তি হয়েছে৷

ভিডিও দেখুন 03:06

বিদ্রোহীদের পূর্ব আলেপ্পো থেকে চলে যাওয়া হবে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের একটি বড় বিজয়, কেননা ২০১২ সাল থেকে দেশটির দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ এই শহরের একটি অংশ বিদ্রোহীদের দখলে রয়েছে৷ সেই অংশের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে নভেম্বরের মাঝামাঝি থেকে অভিযান শুরু করে সিরীয় নিরাপত্তা বাহিনী৷ এই অভিযানে ৬২ জন শিশুসহ ৪৬৫ জন নিহত হয়েছে বলে বুধবার জানিয়েছে লন্ডনভিত্তিক সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস৷ একই সময়ে শহরের সরকার নিয়ন্ত্রিত অংশে বিদ্রোহীদের চালানো রকেট হামলায় ৪২ জন শিশুসহ ১৪২ জন নিহত হয়৷

এদিকে জাতিসংঘ মঙ্গলবার জানিয়েছে, গত কয়েকদিনে ১১ জন নারী ও ১৩ জন শিশুসহ কমপক্ষে ৮২ জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে তাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য খবর আছে৷

২০১১ সালে শুরু হওয়া সিরিয়ার যুদ্ধে তিন লক্ষ ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে৷

নিভে গিয়েছিল আইফেল টাওয়ারের লাইট

আলেপ্পোর মানুষদের ‘অসহনীয়' অবস্থার প্রতিবাদে বুধবার রাত আটটার সময় প্যারিসের আইফেল টাওয়ারের লাইট নিভিয়ে দেয়া হয়েছিল৷

ইইউ সম্মেলনে সিরিয়া প্রসঙ্গ

বৃহস্পতিবার একদিনের জন্য শীর্ষ সম্মেলনে মিলিত হবেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর প্রধানরা৷ সেখানে অনেক বিষয় আলোচিত হবে৷ এর মধ্যে থাকবে সিরিয়া প্রসঙ্গও৷ আলেপ্পোতে সিরীয় সরকার ও রাশিয়ার চালানো অভিযানের কঠোর সমালোচনা করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে৷ সম্মেলনে শরণার্থী সমস্যা, ইইউ-তুরস্ক চুক্তি, ইউক্রেন, ব্রেক্সিট ইত্যাদি বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে৷

জেডএইচ/এসিবি (এপি, রয়টার্স, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়