1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

আর মাত্র ৫০ দিন পরেই বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১০...

দেখতে দেখতে এসেই গেল বিশ্বকাপ ফুটবল৷ তাই খেলা শুরুর আগেই, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দেখা যাচ্ছে উত্তজনা, শুরু হয়েছে এ বছরের বিজয়ী কে হতে পারে - তা নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা৷

default

এখানেই খেলা হবে ২০১০ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ

খুব স্বাভাবিকভাবেই, ‘ফেভারিট'দের তালিকায় উঠে এসেছে গত বছরের চ্যাম্পিয়ন ইটালি, স্পেন এবং ব্রাজিলের নাম৷ এছাড়া, ‘ফেভারিট' হিসেবে আর্জেন্টিনার নামও থাকছে৷ জার্মানিই বা কম কিসে ? কিন্তু, বিজয়ী হিসেবে কিছুতেই যেন নিজের দল ইংল্যান্ডকে দেখতে পারছেন না দেশটির সাবেক ফুটবল তারকা জন বার্নস৷ তাঁর কথায়, ২০১০ সালে ইংল্যান্ড যদি বিশ্বকাপ জয় করে - তবে তা হবে অত্যন্ত অপ্রত্যাশিত৷

শুধু তাই নয়, বার্নস জানান যে, বর্তমানে ইংল্যান্ড দল ধারাবাহিকভাবে অত্যন্ত আত্মবিশ্বাস এবং দৃঢ়তার সঙ্গে খেললেও ব্রাজিলের মতো দলকে হারানোর ক্ষমতা তাদের নেই৷ তাই বার্নস-এর মতেও, এবারের বিশ্বকাপ ছিনিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা আদতে আছে স্পেন এবং ব্রাজিলের৷

উল্লেখ্য, ১৯৬৬ সালের পর আবার ১৯৯০ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলে সবচেয়ে ভালো ফল করেছিল ইংল্যান্ড৷ পৌঁছেছিল সেমি-ফাইনালে৷ আর তখন সেই দলে ছিলেন বার্নসও৷ তাই বিশ্বকাপ নিয়ে বার্নস-এর এই ভবিষ্যদ্বাণী ইংল্যান্ড দলের জন্য হতাশাজনক হলেও, একে একেবারে উপেক্ষা করা বোধ হয় যায় না৷

ওদিকে, বিশ্বকাপ জেতার জন্য মরিয়া জার্মানিও৷ শেষবারের মতো তারা বিশ্বকাপ জেতে সেই ১৯৯০ সালে৷ আর এবার আবার ১০ বছর পর, এই খেতাব জেতার জন্য নিজেদের ‘ফেভারিট' হিসেবে দেখছে জার্মানিও৷ তাই বিশ্বকাপ জয়কেই নিজেদের একমাত্র লক্ষ্য হিসেবে স্থির করে জার্মান ফুটবলাররা জোরালো প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন৷ এই প্রস্তুতি চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং বুন্ডেসলিগা শেষ হওয়ার পর যে আরো বাড়বে - তা বলাই বাহুল্য৷ টিমের ম্যানেজার অলিভার বিয়ারহোফ এবিষয়ে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন৷ ১১ই জুলাই জোহানেসবার্গে সকার সিটি স্টেডিয়ামে ফাইন্যাল ম্যাচে উপস্থিত থাকার লক্ষ্য স্থির করছে জার্মান দল৷ জানা গেছে, টুর্নামেন্টের প্রথম দুটি খেলা হবে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম মেক্সিকো এবং উরুগুয়ে বনাম ফ্রান্সের মধ্যে৷

প্রতিবেদক : দেবারতি গুহ

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়