1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আর একটু পরেই কায়রোয় শুরু হচ্ছে ‘মার্চ অফ এ মিলিয়ন’

মিশরের প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারকের জন্য আজ অগ্নিপরীক্ষা৷ কারণ আর কিছুক্ষণ পর শুরু হতে যাচ্ছে ‘মার্চ অব অ্যা মিলিয়ন’ অর্থাৎ দশ লক্ষ লোকের মিছিল৷ স্থানীয় সময় সকাল ১১ টায় শুরু হওয়ার কথা মিছিল৷

default

আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল তাহরির চত্বর থেকে শুরু করে প্রেসিডেন্ট ভবন পর্যন্ত যাওয়ার পরিকল্পনা করছে বিক্ষোভকারীরা৷

এ উপলক্ষ্যে তাহরির চত্বরে লোকজন জড়ো হতে শুরু করেছে৷ আর আগে থেকেই সেখানে হাজারেরও বেশি মানুষ উপস্থিত রয়েছেন৷ রাতে তারা সেখানে অবস্থান করেছেন৷ মুবারক চলে না যাওয়া পর্যন্ত এই বিক্ষোভকারীরা সেখানেই থাকবেন বলে জানিয়েছেন৷

এদিকে সেনাবাহিনী আগেই বলে দিয়েছে, তারা কোনো বিক্ষোভকারীদের উপর গুলি চালাবে না৷ তবে পুলিশ কী ভূমিকা নেবে সেটা বোঝা যাচ্ছে না৷ উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে৷ তবে মাঝে দুদিন পুলিশকে রাস্তায় দেখা যায় নি৷

বিক্ষোভকারীদের থামাতে সরকার নানান অঙ্গীকারের কথা বলছে৷ যেমন ভাইস-প্রেসিডেন্ট সুলাইমান বলেছেন, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই বেকার সমস্যা, দুর্নীতি, দারিদ্র ইত্যাদি দূর করতে নতুন পরিকল্পনা ঘোষণা করা হবে৷ চাঙ্গা করা হবে অর্থনীতি, যেন আয় ও ব্যয়ের মধ্যে সমতা খুঁজে পায় মানুষ৷ কমবে দ্রব্যমূল্য৷

এদিকে মুবারকের দীর্ঘদিনের ‘বন্ধু' দেশ অ্যামেরিকা কায়রোতে বিশেষ দূত নিয়োগ করেছে৷ মিশরে অতীতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পদে কাজ করে যাওয়া ফ্রাঙ্ক ওয়াইজনার নামের সেই প্রভাবশালী ব্যক্তি চেষ্টা করছেন রাজনৈতিক পরিবর্তন মেনে নেওয়ার জন্য মিশরের নেতাদের, বিশেষ করে মুবারককে বোঝাতে৷

এছাড়া ইসরায়েল এখনও মুবারকের সঙ্গ ছাড়ছে না৷ কারণ তাদের আশঙ্কা, মুবারকের পতন হলে ইরানের মত কোন ইসলামিক শাসনতন্ত্র সেদেশে কায়েম হবে৷ যা কিনা ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েলের জন্য সুখকর নাও হতে পারে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়