1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আর আলোচনা নয়, এবার দিন নির্বাচন

জিম্বাবোয়ের প্রধানমন্ত্রী মর্গান চাঙ্গিরাই-এর দল মুভমেন্ট ফর ডেমোক্র্যাটিক চেঞ্জ বা এমডিসি সে দেশে নতুন করে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি তুলেছে৷ এর ফলে বেশ কিছুদিন পর আবারো আলোচনায় চলে এলো জিম্বাবোয়ে প্রসঙ্গটি৷

default

চাঙ্গিরাই এবং মুগাবে

অ্যাটর্নি জেনারেল ও গভর্ণরের পদ

গত বছরের অক্টোবরে জিম্বাবোয়ের প্রধানমন্ত্রী মর্গান চাঙ্গিরাই এর দল ‘মুভমেন্ট ফর ডেমোক্র্যাটিক চেঞ্জ'বা এমডিসি বেশ কিছু বিরোধের মীমাংসা ও চুক্তি না হওয়ায় প্রেসিডেন্ট বরার্ট মুগাবের জানু পিএফের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগির সরকার থেকে সরে দাঁড়ায়৷ কিন্তু এই সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেবার পর দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যস্ততায় অনুষ্ঠিত আলোচনার পর প্রধানমন্ত্রীত্ব থেকে আর সরে দাঁড়াননি চাঙ্গিরাই৷ তবে দেশে কিন্তু রাজণৈতিক অচলাবস্থাই চলছে৷ বলে রাখা ভালো, এমডিসি দলের অন্যতম রাজনীতিবিদ রয় বেনেটের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ এনে তাঁকে আটক করায় এই দুই দলের মধ্যে বিরোধের সূত্রপাত হয়৷ গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে দুই দলের মধ্যে সমঝোতার পরিপ্রেক্ষিতে কথা ছিল এমডিসির মনোনীত দুই ব্যক্তিকে সরকারের অ্যাটর্নি জেনারেল এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্ণরের পদে রাখা হবে, কিন্তু হয়নি৷ এরপর থেকে এ নিয়ে দুই দলের মধ্যে ম্যরাথন আলোচনা হচ্ছে, যা কোন ফল বয়ে আনেনি৷

কেন নতুন করে নির্বাচন?

শুক্রবার ঐ দলের মুখপাত্র নেলসন চামিসা সংবাদিকদের জানালেন, তাঁরা নতুন নির্বাচন চান৷ বললেন, দিনের পর দিন আলোচনার নামে কালক্ষেপনই করছে জানুপিএফ৷ তিনি জানালেন, এটা তাঁদের কাছে অচলাবস্থার মতই মনে হচ্ছে৷ আর এই অচলাবস্থার একমাত্র সমাধান হতে পারে নতুন করে নির্বাচন৷ তার কথায়, আমরা বিফলের এই আলোচনার অবসান চাই৷ এ জন্য সংবিধান সংশোধনের প্রয়োজন রয়েছে৷ সেটাও করতে হবে৷ তিনি সংবাদমাধ্যমের উপর কড়াকড়ি আরোপের বিরোধিতা করে রবার্ট মুগাবের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেছেন, আপনি সংবাদমাধ্যমের টুঁটি চেপে ধরেছেন, এদের মুক্ত করুন৷

জানুপিএফের কোন প্রতিক্রিয়া নেই

সাগর: না, এখনো কোন বক্তব্য দেয়নি৷ তবে জিম্বাবোয়ের রাজনৈতিক বিশ্লেষক এল্ডার্ড মাসুনুনগুরে বলেছেন, জিম্বাবোয়ে এখন নির্বাচনের জন্য কোনভাবেই প্রস্তুত নয়৷

২০০৮ সালে সেখানে সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়৷ কারচুপির অভিযোগে অভিযুক্ত ঐ নির্বাচনে জয় লাভ করে মুগাবের দল৷ পরে এর বিরুদ্ধে কঠোর সংগ্রাম গড়ে তোলেন চাঙ্গিরাই৷ গত বছরের প্রথমে ক্ষমতা ভাগাভাগি হয় আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতায়৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়