1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আর্থিক সংকটের কারণে গ্রিসে মানুষের দুর্দশা কম নয়

গ্রিসের আর্থিক সংকট সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলিতে, বিশেষত টুইটারে যথেষ্ট গুরুত্ব পাচ্ছে৷ এই সংকটকে ঘিরে নানা তথ্য, বিশ্লেষণ, মতামত, ব্যঙ্গচিত্র ইত্যাদি শেয়ার করছেন টুইটার ব্যবহারকারীরা৷

সরকারি স্তরে দরকষাকষি, আলোচনা, তর্ক-বিতর্ক সংক্রান্ত খবরে গ্রিসের সাধারণ মানুষের দুর্দশা ঢাকা পড়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে৷ যেমন মার্ক রাসেল লিখেছেন, গ্রিসের সংকট বয়স্ক, চরম দরিদ্র শ্রেণির সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করছে৷ তাদের চোখেমুখে যে ভয়, তা কল্পনা করা যায় না৷

অন্যদিকে গ্রিসের এক শতাংশ ধনীরা এককালে ঋণের সুবিধা নিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ কামিয়েছে আর এখন ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষকে ব্যয় সংকোচের মাধ্যমে শাস্তি দিচ্ছে বলে মনে করেন এক টুইটার ব্যবহারকারী৷

প্রাপ্য অবসর ভাতা আজ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে৷ কিন্তু অনেকেরই রসবোধ অটুট রয়েছে৷ ডাফনে টোলিস এমনই একজনের ছবি শেয়ার করেছেন৷

ডাফনে গিনেস লিখেছেন, মানুষের খাদ্য, চিকিৎসা, অবসর ভাতার প্রয়োজন রয়েছে৷ এটা সত্যি এক কালো সময়৷

বামপন্থি প্রগতিশীলদের ব্যঙ্গ করে একজন লিখেছেন, তাদের সমস্যা হলো, তর্ক-বিতর্কের মধ্যে শেষ পর্যন্ত অন্যদের দেওয়া অর্থও শেষ হয়ে যায়৷

গ্রিসের বর্তমান অবস্থা বর্ণনা করে লুসি বার্টন লিখেছেন, বাসে ওঠার লাইন ব্যাংকের লাইনের তুলনায় বড়৷

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান ক্রিস্টিন লাগার্দ ও গ্রিসের অর্থমন্ত্রী ইয়ানিস ভারুফাকিস গ্রিসের সংকটের বিষয়ে একমত না হতে পারলেও পোশাকের বিষয়ে তাঁদের মধ্যে মিল রয়েছে – লিখেছেন টোনি অ্যাডিসন৷

সংকলন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়