1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আরোহীদের কেউ বেঁচে নেই: মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষ

মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের এমএইচ৩৭০ উড়ালের বিমানটির খোঁজে এখনও অব্যাহত তল্লাশি অভিযান৷ সোমবার ভারত মহাসাগরে আবারো ভাসমান বস্তুর দেখা পেয়েছে অস্ট্রেলিয়ার একটি বিমান৷ কিন্তু মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষের ধারণা আরোহীদের কেউ বেঁচে নেই৷

Suche Malaysian Airlines MH370 22.03.2014 Satellitenaufnahme

স্যাটেলাইট ছবি

এর আগে সোমবার সকালে চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সিনহুয়া জানায়, চীনা ইলিউশিন আইএল-৭৬ বিমানটি ভারত মহাসাগরের বেশ কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ভাসমান বড় একটি বস্তু এবং ছোট ছোট সাদা রঙের কিছু বস্তুর দেখা পেয়েছে, যা এলাকাব্যাপী ছড়িয়ে রয়েছে৷ তবে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায় যে, চীনা সরকার এখনো নিশ্চিত নয় যে বস্তুগুলো আসলেই নিখোঁজ বিমানের কিনা৷ মঙ্গলবার চীনের চারটি জাহাজ ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাঞ্চলে পৌঁছানোর কথা৷

এদিকে অস্ট্রেলিয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত অনুসন্ধানী বিমান মার্কিন নৌ-বাহিনীর পি-৮ পোসেইডন চীনা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার পর, সোমবার সেখানে তল্লাশি শুরু করেছে৷ শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী অস্ট্রেলিয়ার মেরিটাইম সেফটি অথরিটি বা এএমএসএ একটি মেইলে রয়টার্সকে জানিয়েছে যে, চীনা বিমানটি ৩৩ হাজার ফুট উপর থেকে বস্তুটি লক্ষ্য করার পর তাদের অনুসন্ধানী বিমান পি-৮ পোসেইডন ঘটনাস্থলে গিয়ে অনুসন্ধান শুরু করে৷

সোমবার দিনের শেষে অস্ট্রেলিয়ার একটি বিমানও দুটি বস্তু দেখতে পায় এবং শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী তল্লাশি চালাতে তাদের একটি জাহাজ ঐ স্থানে যাচ্ছে৷

তবে এগুলি ছাড়াও এদিন বেশ কয়েকটি দেশের জাহাজ ও বিমান ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাঞ্চলে খোঁজ চালিয়েছে৷ এছাড়া অস্ট্রেলিয়া ও অ্যান্টার্কটিকার ৫৯ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে ১০টি বিমান৷

এর আগে শনিবার অস্ট্রেলিয়ান একটি বিমান পশ্চিম উপকূল থেকে অনেক দূরে কাঠের তক্তা এবং আরো কিছু জিনিসের সন্ধান পায়৷ অস্ট্রেলিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী ওয়ারেন ট্রুস বলেছেন, যেখান থেকে যতটুকু তথ্য পাওয়া যাচ্ছে, সবই অনুসন্ধান করে দেখছেন তারা৷

এদিকে মার্কিন নৌ-বাহিনী ভারত মহাসাগরে একটি বিশেষ ডিভাইস পাঠাতে যাচ্ছে, যা বলে দেবে বিমানটির ‘ব্ল্যাক বক্স' কোথায় রয়েছে৷ উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এই যন্ত্রটি ২০,০০০ ফিট গভীরের ব্ল্যাক বক্সের সন্ধান দিতে পারে৷ তবে ব্ল্যাক বক্সটি অনুসন্ধান যত দ্রুত চালানো সক্ষম ততই ভালো কেননা, ৩০ দিন পর এর সিগনাল বন্ধ হয়ে যায়৷

মালয়েশিয়া এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ অবশ্য নিখোঁজ বিমানটির স্বজনদের জানিয়ে দিয়েছেন, সব তথ্য বিশ্লেষণ করে তারা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে যে এমএইচ৩৭০ হারিয়ে গেছে এবং আরোহীদের কেউ বেঁচে নেই৷

ওদিকে সোমবার ও মঙ্গলবার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া অধিদপ্তর৷ ফলে অনুসন্ধানকাজ আরো ধীর গতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ ২৩৯ জন আরোহী নিয়ে ৮ই মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের এমএইচ৩৭০ উড়ালের বিমানটি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়

অন্যদিকে সোমবার মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার সৌলগামী একটি বিমান বৈদ্যুতিক সমস্যার কারণে হংকং এ অবতরণ করতে বাধ্য হয়েছে৷ পরে সেখান থেকে ২৭১ জন যাত্রীকে অন্য বিমানে সৌল রওনা করা হয় বলে হংকং-এর বিমান কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়