1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আমি বাংলাদেশ সম্পর্কে খুবই আশাবাদী'

অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে গত ২০ বছরে বাংলাদেশ অনেকটা এগিয়েছে, তবে উন্নতির সুযোগ আরো রয়েছে, মনে করেন নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) মানব উন্নয়ন প্রতিবেদন কার্যালয়ের পরিচালক ড. সেলিম জাহান৷

জাতিসংঘের মানব উন্নয়ন প্রতিবেদন প্রকাশের জন্য সম্প্রতি জার্মানির বন শহরের জাতিসংঘ কার্যালয় পরিদর্শন করেন ড. সেলিম জাহান৷ এ সময় ডয়চে ভেলেকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি তুলে ধরেন অথনৈতিক খাতে বাংলাদেশের উন্নতির নানা দিক৷ তিনি মনে করেন, গত ২০ বছরে মানব উন্নয়ন সূচকের মান বেড়েছে, যা সন্তোষজনক৷ আর প্রতিবেশী দেশগুলোর তুলনায়ও বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে৷ তিনি বলেন, ‘‘এখন বাংলাদেশের মানুষের গত আয়ু ৭১ বছর৷ ভারতে যেখানে ৬৬ বছর, পাকিস্তানে ৬৬ বছর৷ শিশুমৃত্যুর হারও প্রতিবেশীদের তুলনায় অনেক কমিয়েছে বাংলাদেশ৷''

অডিও শুনুন 07:32

সাক্ষাৎকারটি শুনতে ক্লিক করুন এখানে

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের হিসেব অনুযায়ী, জাতিসংঘের মানব উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৮টি দেশের মধ্যে ১৪২তম৷ ড. জাহান মনে করেন, এই অবস্থানের উন্নয়নের সুযোগ রয়েছে৷ তাঁর মতে, বাংলাদেশে শিক্ষার বিস্তার হচ্ছে৷ পাশাপাশি শিক্ষার মানও বাড়াতে হবে৷ মাথায় রাখতে হবে, শিক্ষার্থীদের শুধু বাংলাদেশ নয় গোটা বিশ্বের মধ্যে প্রতিযোগিতার উপযোগী করে তুলতে হবে৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক এই অধ্যাপক নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের অগ্রগতিতেও সন্তুষ্ট৷ তবে নারীকে আরো বেশি স্বাধীনতা, বিশেষ করে আর্থিক স্বাধীনতা, সিদ্ধান্ত গ্রহণের স্বাধীনতা দিতে হবে বলে মনে করেন তিনি৷ তিনি জানান, পরিবারে নারীর ভূমিকা বাড়াতে হবে৷ যেসব ক্ষেত্রে এখন পুরুষরা অগ্রাধিকার পাচ্ছে, সে সবক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে৷

বাংলাদেশ সম্পর্কে খুবই আশাবাদী ড. জাহান৷ বাংলাদেশিদের মধ্যে সৃজনশীলতা আছে, কর্মক্ষমতাও অত্যন্ত বেশি, মনে করেন তিনি৷ পাশাপাশি তিনি এটাও মনে করেন যে, নারীরা যতদিন পিছিয়ে থাকবেন ততদিন সমাজের অগ্রগতি সম্ভব নয়৷

‘‘সমাজের অর্ধেক জনসংখ্যাকে পিছিয়ে রেখে আমরা আগাতে পারবো না৷ সুতরাং নারীর ক্ষমতায়নে আমরা যতটা এগিয়েছি সেটাও বড় অজর্ন'', বলেন ড. জাহান৷ পুরো সাক্ষাৎকারটি শুনতে ক্লিক করেন এই লিংকে৷

আপনার কি কিছু বলার আছে? লিখুন নীচের মন্তব্যের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়