1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘‘আমি কৃষ্ণাঙ্গ’’, বলেছেন ইটালির সংহতি মন্ত্রী

ইটালির প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মন্ত্রী সেসিলে কিয়েঙ্গে যে কেউ তাঁকে ভদ্রতা করে ‘কলর্ড’ বা ‘বর্ণযুক্ত’ বলে বর্ণনা করুক, তা চান না৷ ‘‘আমি কলর্ড নই, আমি কৃষ্ণাঙ্গ,’’ বলেছেন কিয়েঙ্গে৷ ‘‘আমি ইটালো-কঙ্গোলিজ এবং আমি কৃষ্ণাঙ্গ৷’’

গত রবিবার প্রধানমন্ত্রী এনরিকো লেত্তার সরকার শপথ গ্রহণ করে৷ মন্ত্রীদের মধ্যে মধ্য-বাম গণতান্ত্রিক দলের সদ্য নির্বাচিত সাংসদ কিয়েঙ্গে ছিলেন৷ তাঁর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে কিয়েঙ্গে বর্ণের – এবং সেই সঙ্গে জাতির – ব্যাপারটা পরিষ্কার করে দেন৷ তিনি বলেন, ‘‘আমি বহু জায়গায় দেখেছি, আমার প্রতি ‘কলর্ড' বলে উল্লেখ করা হচ্ছে৷ কিন্তু আমি কলর্ড নই, আমি কৃষ্ণাঙ্গ, এবং সেটা বলা গুরুত্বপূর্ণ৷ আমি এ বিষয়ে গর্ব বোধ করি৷''

গোঁড়া দক্ষিণপন্থিদের মধ্যে কয়েকটি গোষ্ঠী কিয়েঙ্গের নিয়োগের সমালোচনা করেছে৷ উত্তরের নর্দার্ন লিগ পার্টি অভিবাসন বিরোধী৷ ইউরোপীয় সংসদে তাদের এক সদস্য মারিও বরঘেজিও অনুরূপভাবে কিয়েঙ্গের নিয়োগের সমালোচনা করেছেন৷ কিন্তু কিয়েঙ্গের বক্তব্য হলো: ‘‘ইটালি কোনো জাতিবাদি দেশ নয়৷ এদেশে অন্যদের স্বাগত জানানোর এবং আতিথেয়তার একটা ঐতিহ্য আছে৷''

তাঁর বিরুদ্ধে যে সব সমালোচনা ও বিরূপ মন্তব্য করা হয়েছে, ইটালির সুশীল সমাজ তার প্রতিবেদ জানিয়েছে, বলে লেত্তা মন্ত্রীসভার এই মহিলা মন্ত্রী উল্লেখ করেন৷ লেত্তা ও অপরাপর মন্ত্রীরাও তাঁর সমর্থন করেছেন, বলে কিয়েঙ্গে জানান৷ লেত্তা ও তাঁর উপপ্রধানমন্ত্রী আঞ্জেলিনো আলফানো – যিনি যুগপৎ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী – উভয়ে একটি যুগ্ম বিবৃতিতে বলেছেন, ‘‘সেসিলে কিয়েঙ্গে কৃষ্ণাঙ্গ হিসেবে গর্ববোধ করেন এবং আমরা আমাদের সরকারে তাঁকে সংহতি মন্ত্রী হিসেবে পেয়ে গর্বিত৷

সব সত্ত্বেও, ইটালিতে জাতিবাদ যে শুধু ফুটবলে নয়, সমাজের বিভিন্ন স্তরে ও পর্যায়ে দৃষ্টিগোচর হয়ে উঠছে, সেটা নিশ্চয় কিয়েঙ্গের অজ্ঞাত নয়৷ সংহতি মন্ত্রী হিসেবে সেখানেই তাঁকে কাজ শুরু করতে হবে৷

এসি/এসবি (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়