1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘আমাদের হাতেই বন্য প্রাণীর ভবিষ্যৎ'

বাংলাদেশে একটা কথা বেশ প্রচলিত – ‘বাঘ বাঁচলে বাঁচবে বন, রক্ষা পাবে সুন্দরবন'৷ হ্যাঁ, তবে শুধু সুন্দরবনই নয়, বন্য প্রাণী বাঁচলে আমরাও বাঁচবো৷ পৃথিবীর জন্য, পরিবেশের জন্য, মানুষের জন্যও যে তাদের বাঁচিয়ে রাখা দরকার৷

আর এই কাজটা করতে হবে আমাদেরই৷ ৩রা মার্চ, বিশ্ব বন্য প্রাণী দিবসে এ কথাই মনে করিয়ে দিয়েছে জাতিসংঘ৷ তৈরি করেছে সুন্দর একটি ভিডিও, যার মারফত তারা স্পষ্ট করেই বলেছে, ‘মনুষের হাতেই রয়েছে বন্য প্রাণীর ভবিষ্যৎ৷'

ভিডিওটিতে সামগ্রিকভাবে বন্য প্রাণী রক্ষার আহ্বান জানানো হলেও এ বছর হাতির ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে তারা৷ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অফ নেচার (আইইউসিএন) ২০০৪ সালে হাতির ওপর একটা জরিপ করে৷ সেই জরিপ অনুযায়ী, বাংলাদেশে মাত্র ২২৭টি হাতির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে৷ ভয়ের বিষয় হলো যে, এ সংখ্যাটাও কমছে ক্রমশই৷

অন্যদিকে, ২০০৪ সালে ৪৪০টি বাঘের অস্তিত্বের কথা বলা হলেও, সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশের সুন্দরবনে আর মাত্র ১০৬টি রয়েল বেঙ্গল টাইগার বেঁচে আছে বলে জানিয়েছেন বন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা তপন কুমার দে৷

২০১২ সালের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী বাঘ ও হাতি হত্যায় সর্বোচ্চ শাস্তি সাত বছরের কারাদণ্ড এবং ১০ লাখ টাকা জরিমানা ধার্য করা হয়েছে৷ কিন্তু তারপরও বাঘ মারার ঘটনা ঘটে চলেছে বাংলাদেশে৷ তার ওপর আছে চোরাকারবারিদের উপদ্রব৷ তাই বনের প্রাণী রক্ষায় সচেতনতার বিকল্প নেই৷ আর জাতিসংঘের এই ভিডিওটি দেখলে আপনি কিছুটা সচেতন অবশ্যই হবেন৷

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতিবছর এই ৩রা মার্চ দিনটি বিশ্ব বন্য প্রাণী দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে৷

ডিজি/এসিবি

‘আমাদের হাতেই বন্য প্রাণীর ভবিষ্যৎ' – এ কথাটা কি আপনি মানেন? জানান নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন