1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আবার আলোচনার টেবিলে ইরান

ইরান অবশেষে তার বিতর্কিত পারমাণবিক প্রকল্প নিয়ে আলোচনায় বসতে সম্মত হয়েছে৷ আগামী সপ্তাহে জেনেভায় ইরান এবং পশ্চিমা শক্তিগুলোর মধ্যে এই আলোচনা শুরু হতে যাচ্ছে৷

default

আগামী সপ্তাহে জেনেভায় আলোচনা হতে চলেছে

ইরানের পারমাণবিক প্রকল্প নিয়ে নতুন পর্যায়ের এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে ডিসেম্বরের ৬ ও ৭ তারিখে৷ ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র বলেছেন, ইরানের প্রধান আলোচক সাঈদ জলিলি আলোচনার জন্যে মিলিত হবেন ই ইউ-এর প্রধান কূটনীতিক ক্যাথরিন অ্যাশটনের সঙ্গে৷ মুখপাত্র জানিয়েছেন অ্যাশটন প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন৷ মুখপাত্র বলেন, ইরানের কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে এই ব্যাপারে যে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে, তাতে বলা হয়েছে, জেনেভার আলোচনার ব্যাপারে ক্যাথরিন অ্যাশটনের প্রস্তাব ড. জলিলি গ্রহণ করেছেন৷

Catherine Ashton Said Dschalili, Saeed Jalili Fotomontage Kombo

অ্যাশটন-জালিলি আলোচনার দিকে তাকিয়ে গোটা বিশ্ব

৩ প্লাস ৩ অথবা ৫ প্লাস ১ গ্রুপের এই আলোচনাতে নেতৃত্ব দেবেন ক্যাথরিন অ্যাশটন৷ অর্থাৎ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে ইরান এবং জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স ও ব্রিটেন এবং জার্মানির মধ্যে৷ ইরান এবং বিশ্বের এই ছয় শক্তির মধ্যে গত বছরের পরে এই প্রথম আলোচনা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে৷ ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে জেনেভাতেই ইরানের সঙ্গে এই ছয় শক্তির শেষ আলোচনাটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷

ঐ কর্মকর্তা বলেন, কোন সন্দেহ নেই যে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ব্যাপারটিই ইরানকে পুনরায় আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে আনছে৷ ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ প্রকল্প বন্ধ করতে অস্বীকার করায় ইরানের ওপর চতুর্থ দফা জাতিসংঘ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে৷

আলোচনার এজেন্ডা নিয়ে মতবিরোধের কারণেই পুনরায় আলোচনা শুরুর ব্যাপারে ঐক্যমত্যে আসছিল না ইরান৷ তেহরানের বিতর্কিত পারমাণবিক কর্মসূচিই আলোচনায় প্রাধান্য পাবে বলে আশা করছে বিশ্বের শক্তিধর ছয়টি দেশ৷ তবে ইরানের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ বারবারই বলে আসছেন, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা চালানো যাবে না৷ তবে অ্যাশটন বলেছেন, সব ইস্যুই টেবিলে থাকবে, তবে আলোচনা পারমাণবিক কর্মসূচির ওপরে আলোকপাত করেই অনুষ্ঠিত হবে একই সঙ্গে তিনি এই ইঙ্গিতও দেন৷ যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপের মত পশ্চিমা শক্তি এবং ইসরায়েলের আশঙ্কা, এই কর্মসূচির আড়ালে ইরান পারমাণবিক অস্ত্রের উন্নয়ন ঘটাচ্ছে৷ তবে ইরান বলে আসছে শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যেই এই কর্মসূচি চালানো হচ্ছে৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা
সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক