1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

আবারো ত্রুটি মাইক্রোসফটে, আশঙ্কা তথ্য নিরাপত্তা নিয়ে

মাইক্রোসফটে ওয়েব ব্রাউজার হিসেবে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার৷ রবিবার এই ব্রাউজারে একটি নিরাপত্তা ত্রুটি চোখে পড়ে মাইক্রোসফটের৷ যেটা সারাতে, তার সমাধান করতে এখনও কাজ করে চলেছে তারা৷

মাইক্রোসফট জানিয়েছে, শনাক্ত করার সাথে সাথে ত্রুটি মেরামতে উঠে পড়ে লেগেছে তারা৷ মার্কিন এই সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের ১১টি ফ্ল্যাগশিপের মধ্যে ছয়টি ভার্সন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷ এগুলোতে ‘কোডিং' সমস্যা দেখা দিয়েছে৷ এই ত্রুটির ফলে নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়েছে কোটি কোটি মানুষের তথ্য৷

Windows XP / Microsoft

উইন্ডোজ এক্সপির পুরোনো ভার্সন বন্ধ হয়ে গেছে

এ জন্য ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ব্যবহারকারীদের সতর্ক করে দিয়েছে মাইক্রোসফট৷ তবে সাইবার হামলা সীমিত আকারে হওয়ার সম্ভাবনা বেশি বলে জানিয়েছে তারা৷

মাইক্রোসফট বলছে, যে সমস্ত সাইবার হামলাকারী সঠিকভাবে কোড ভাঙতে সক্ষম হবে তারা হয়ত আসল ব্যবহারকারীর সব ধরনের অধিকার পেয়ে যাবে৷ এমনকি সেসব তথ্য ব্যবহার করে নতুন অ্যাকাউন্টও ও ওয়েব ডিজাইন করতে পারবে তারা৷ সাইবার নিরাপত্তা ফার্ম ‘ফায়ার আই' এই ত্রুটি প্রথম খুঁজে পেয়েছে৷ তারা বলছে, ‘অপারেশন ক্ল্যানডেস্টাইন ফক্স' নামে হ্যাকাররা ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারে প্রচারণা চালাচ্ছে৷

ব্যবহারকারীদের মধ্যে অবশ্য অন্য একটা আতঙ্কও দেখা দিয়েছে৷

আর সেটা হলো, এ মাসের প্রথম দিকে উইন্ডোজ এক্সপি তাদের পুরোনো ভার্সন বন্ধ করে দিয়েছে৷ ইতিমধ্যে বেশ কিছু সফটওয়ার আপডেট করেছে তারা৷ এর মধ্য দিয়েও হ্যাকাররা সুবিধা নিচ্ছে বলে আশঙ্কা করছেন তারা৷

এছাড়া এ মাসের প্রথম দিকে ইন্টারনেটে তথ্য নিরাপত্তা নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়, সেই সমস্যার নাম দেয়া হয় ‘হার্টব্লিড'৷ ইন্টারনেটে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তার কাজে ব্যবহৃত ‘এনক্রিপশন' পদ্ধতিতে বড় ধরনের ত্রুটি ধরা পড়ে৷ এই ত্রুটির ফলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের পাসওয়ার্ড, ক্রেডিট কার্ড নম্বরসহ স্পর্শকাতর সব তথ্য পড়ে যায় ঝুঁকির মুখে৷ বিশেষজ্ঞরা জানান, ‘ডেটা স্ক্র্যাম্বলিং'-এ ব্যবহৃত ওপেনএসএসএল এনক্রিপশনে প্রায় দু'বছর ধরে এই ত্রুটি রয়েছে৷ এর সুযোগ নিয়ে ওপেন এসএসএল-এর সহায়তায় চলে এমন ওয়েব সার্ভারগুলো থেকে হ্যাকাররা তথ্য চুরি করতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তাঁরা৷

এপিবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন